চেংছড়িতে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিচ্ছে আদিবাসী ফোরাম

মংথেহ্লা রাখাইন, কক্সবাজারঃ জালিয়া পালং চেংছড়ি গ্রামের ঝরে পড়া শতাধিক আদিবাসী শিক্ষার্থীর মধ্যে আলো ছড়িয়ে দিচ্ছে আদিবাসী প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয়। বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম কক্সবাজার জেলা শাখার অর্থায়নে পরিচালিত এ স্কুলে চাকমা, তঞ্চঙ্গ্যা আদিবাসী জনগোষ্ঠীর ঝরে পড়া শিশুরা পড়ছে। কয়েকদিন আগেও চিন্তা করতে পারেনি তারা আদৌ শিক্ষার আলো পাবো কি না। এই প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয়টি অনেক পিতা মাতার স্বপ্ন বাস্তবায়িত করছে। তাদের ছেলে-মেয়েরা এখন স্কুলে যায়। উখিয়া উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের চেংছড়ি পাড়া উপর তলায় পাড়ায় এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫৫ জন শিক্ষার্থী এই সুবিধা পাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বই খাতা, কলম, পেন্সিলসহ শিক্ষা সামগ্রী প্রদান করছে আদিবাসী ফোরাম ও আদিবাসী ছাত্র পরিষদ। । এ গ্রামের অনেকেই প্রাইমারি পর্যন্ত পড়াশুনা করতে পারে নি। এই ঝরে পড়া শিশুদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলার প্রয়াসে এ গ্রামে এ স্কুলটি গড়ে তোলা হয়েছে।
শুধু চেংছড়ি নয়, টেকনাফ ও উখিয়া উপজেলার ১৭টি আদিবাসী গ্রামে মাধ্যমিক পর্যায় পর্যন্ত পৌছতে পারেনি অনেক আদিবাসী ছেলে মেয়ে। আদিবাসী ফোরাম ও আদিবাসী ছাত্র পরিষদের এই কার্যক্রম এলাকার আদিবাসীদের মনে আশার সঞ্চার করেছে। আদিবাসী ফোরামের নেতৃবৃন্দ বলছেন অন্যান্য গ্রামগুলোতেও এই কার্যক্রম প্রসার করার উদ্যোগ নেয়া হবে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *