লাউয়াছড়ার ২৫ হাজার গাছ হত্যা বন্ধ করুন

সরকার রেল লাইন সংস্কারের নামে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ভেতর দিয়ে নির্মিত রেল লাইনের দু’পাশের গাছ কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আসাদুল্লাহ তারেক সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তের তীব্র ক্ষোভ, নিন্দা জানিয়েছেন ।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন যে, নির্বিঘ্নে ট্রেন চলাচলে ও দুর্ঘটনা এড়াতে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ভেতরে রেল লাইনের দু’পাশে ২৫ হাজার শতবর্ষী গাছ হত্যার পদক্ষেপ নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। সংরক্ষিত এ বনাঞ্চলের ২৫ হাজার গাছ কাটা পড়বে বলে আশংকা প্রকাশ করেছে বনবিভাগ। দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমানের স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয় রেলওয়ের এই মরণঘাতি পদক্ষেপের শিকার হবে প্রকৃতি-পরিবেশ-বন্যপ্রাণী এবং শত শত বছর ধরে বনে বসবাসরত প্রকৃতির সন্তান আদিবাসীরা। বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে লাউয়াছড়া বনে ১৬৭ প্রজাতির বৃক্ষ, ২৪৬ প্রজাতির পাখী, ২০ প্রজাতির স্তন্যপায়ীসহ অসংখ্য বিরল ও বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী- উদ্ভিদের আবাসস্থল।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, দুনিয়ার কোনো দেশে জাতীয় উদ্যানের বনের ভেতর রেললাইন না থাকলেও বাংলাদেশে তা রয়েছে। প্রকৃতিপ্রেমী, পরিবেশবাদীদের আপত্তিকে উপেক্ষা করে সরকারের এহেন সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হলে শুধু ঐ অঞ্চলের পরিবেশের উপর বিরুপ প্রভাব পড়বে না, ইকো সিস্টেমে বিপর্যয় নেমে আসবে। পশু পাখির অভয়ারণ্যকে হুমকির মুখে ঠেলে দেওয়া হবে।
বিবৃতিতে প্রকৃতি-পরিবেশ-জীববৈচিত্র এবং আদিবাসীদের সুরক্ষার স্বার্থে বনের ভিতরের রেল লাইনটিকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার জোর দাবি জানানো হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *