কাতালান গণভোট: ভোটকেন্দ্র বন্ধ করে দিচ্ছে পুলিশ

আসন্ন গণভোটে কাতালুনিয়া প্রশাসন যে বিদ্যালয়গুলো ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের পরিকল্পনা করেছে তার অর্ধেকের বেশিই বন্ধ করে দিয়েছে স্পেন পুলিশ।
স্বাধীনতার প্রশ্নে রোববার গণভোটের আয়োজন করেছে কাতালুনিয়ার স্থানীয় সরকার; যা পণ্ড করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় প্রশাসন।

পুলিশ এরই মধ্যে আঞ্চলিক সরকারের টেলিযোগাযোগ কেন্দ্রের দখল নিয়েছে।

সম্পদশালী কাতালুনিয়ার স্বায়ত্বশাসন আছে; যদিও এর সরকার বলছে, জনগণ স্পেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা চায়। সেখানে প্রায় ৭৫ লাখ মানুষ বসবাস করে এবং তাদের নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি আছে।

গণভোট আয়োজনে এ মাসের শুরুর দিকে কাতালান পার্লামেন্ট নতুন একটি আইন পাশ করে। যদিও দেশটির সাংবিধানিক আদালত ওই আইনে স্থগিতাদেশ দিয়েছে।

তা সত্ত্বেও যথা সময়ে গণভোট আয়োজনের প্রস্তুতি নিতে থাকে কাতালান সরকার।

তাদের থামাতে বল প্রয়োগ শুরু করে মাদ্রিদ; শুরু হয় ব্যাপক ধরপাকড় ও তল্লাশি অভিযান।

রোববারের গণভোট আটকাতে কাতালুনিয়ায় হাজার হাজার পুলিশ পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

এদিকে ভোটকেন্দ্র হিসেবে স্কুলগুলোর ব্যবহার নিশ্চিত করতে গণভোটের পক্ষের কর্মীরা শুক্রবার থেকেই সেখানে অবস্থান নিয়েছে।

এমনকি স্কুলের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরাও শুক্রবার স্কুল ছুটি হয়ে যাওয়ার পরও সেখানেই থেকে গেছেন।

কেন্দ্রীয় সরকার পুলিশকে স্কুলগুলো খালি করে সেগুলো বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

কাতালান আঞ্চলিক পুলিশ কর্মকর্তাদের স্পেনের জাতীয় পুলিশ বাহিনীকে সহায়তার আদেশ দেওয়া হলেও তারা মাঠে নামেনি বলে জানায় বিবিসি।

ব্যালট পেপারসহ ভোটের অন্যান্য সরঞ্জামও জব্দ করছে পুলিশ। অনলাইনে গণভোটের প্রচার চলানো হচ্ছে এমন লিংক বন্ধ করতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

তবে এত সব কিছুর পরও গণভোট যথা সময়ে হবে বলে রয়টার্সকে জানান কাতালান নেতা কার্লোস পুজদেমন।

তিনি বলেন, “দুই হাজারের বেশি ভোটকেন্দ্রে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সব জায়গায় ব্যালট বাক্স এবং ব্যালট পেপার পৌঁছে গেছে। জনগণের নিজেদের মত প্রকাশে যা কিছু প্রয়োজন তার সব আয়োজনই শেষ হয়েছে।”

কাতালান রাজধানী বার্সেলোনায় শুক্রবার হাজার হাজার মানুষ গণভোটের পক্ষে মিছিল করে।

যদিও এদিন গণভোটের বিপক্ষেও মিছিল হয়েছে। কাতালুনিয়ার প্রধান বিরোধীদলের ডাকে লা হসপিটালে দে লোবরেগাত শহরে প্রায় দুই হাজার মানুষ গণভোটের বিপক্ষে মিছিল করেছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *