পার্বত্যাঞ্চলে রফতানিমুখী শিল্প স্থাপনঃ প্রণোদনা চেয়ে প্রতিমন্ত্রীর চিঠি

পার্বত্য এলাকায় রফতানিমুখী শিল্প স্থাপনে প্রণোদনা চেয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম-বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। উভয় মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রফতানিমুখী শিল্প স্থাপনের মাধ্যমে পার্বত্য অঞ্চলের প্রায় ১৬ লাখ জনসংখ্যার জীবনমান উন্নয়নের পরিকল্পনা করছেন পার্বত্য অঞ্চলের প্রতিনিধিরা। এরই অংশ হিসেবে গত মাসে অর্থ মন্ত্রণালয়ে একটি উপানুষ্ঠানিক পত্র পাঠিয়েছেন বীর বাহাদুর উশৈসিং। এতে তিনি পার্বত্য অঞ্চলে পরিবেশবান্ধব বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার মাধ্যমে সেখানকার জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন পরিকল্পনার বিষয়ে বলেছেন। পাশাপাশি দেশের রফতানি খাতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখার ক্ষেত্রে পার্বত্য অঞ্চল অনেক ভূমিকা রাখতে পারে বলে মত প্রকাশ করেন তিনি। চিঠিতে সম্ভাবনাময় বান্দরবানসহ তিন পার্বত্য জেলায় বিভিন্ন শিল্প খাতে এলাকাভিত্তিক প্রণোদনা ও রফতানি ভর্তুকি/নগদ সহায়তা প্রদানে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতা ও এ বিষয়ে পরবর্তী উদ্যোগ নেয়ার জন্য দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে।

চিঠিতে প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে শতভাগ রফতানিমুখী শিল্পে রফতানির বিপরীতে ভর্তুকি প্রদান করা হলে তা অর্থনীতিতে বড় ধরনের অবদান রাখতে সক্ষম হবে। ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তি সম্পাদনের পর পার্বত্য অঞ্চলের শিক্ষা, যোগাযোগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে পরিবর্তনের ছোঁয়া লেগেছে বলে তিনি অর্থ মন্ত্রণালয়কে অবহিত করেন।

পার্বত্য অঞ্চলে বর্তমানে চলমান শিল্প-কারখানার উদাহরণ টেনে পত্রে বলা হয়েছে, রফতানিমুখী শিল্প গড়ে তোলার জন্য যে পরিবেশের প্রয়োজন, এ অঞ্চলে তা রয়েছে। তা সত্ত্বেও শিল্পের জন্য অপেক্ষাকৃত বেশি সম্ভাবনাময় বান্দরবানে শতভাগ রফতানিমুখী শিল্পপ্রতিষ্ঠান লুম্বিনী লিমিটেড ছাড়া আর কোনো প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠেনি।

প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেছেন, রফতানি বাণিজ্যকে উত্সাহিত করার লক্ষ্যে সরকার বিভিন্ন সময় বিভিন্ন শিল্প খাতে এলাকাভিত্তিক প্রণোদনা ও রফতানিতে ভর্তুকি/নগদ সহায়তা প্রদান করে আসছে। এ কর্মসূচির আওতায় পার্বত্য অঞ্চলেও প্রণোদনা ও রফতানি ভর্তুকি প্রদানের আহ্বান জানান তিনি।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *