দীঘিনালায় পাহাড়ী নারীকে কুপিয়ে হত্যাঃ এলাকায় উত্তেজনা

খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা উপজেলার মেরুং ইউনিয়নে মধ্যে বোয়ালখালী গ্রামে এক পাহাড়ি নারীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের নাম ইন্দ্রা চাকমা (৫৫)। ইন্দ্রা এলাকায় রুনা মা নামে পরিচিত। তার স্বামী মৃত সুরতি চাকমা।

শনিবার সকাল পৌনে ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। হত্যা জড়িত থাকার অভিযোগে মো, আলাউদ্দিন (৬৫) কে আটক করে পুলিশের হাতে দিয়েছে এলাকাবাসী।

দীঘিনালা থানার ওসি ছামসুদ্দিন ভুইয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সকালে ইন্দ্রা নাড়া (ধান তোলার পর ধান গাছের অবশিষ্ট অংশ) কাটতে জমিতে যায়। এ সময় আলাউদ্দিন ইন্দ্রাকে বাধা দিলে দুজনরে মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আলাউদ্দিন ধারল অস্ত্র দিয়ে ইন্দ্রাকে কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনাস্থলে ইন্দ্রার মৃত্যু হয়।

ওসি জানান, ধান চাষ হওয়া এই জমিটি ছিল স্থানীয় পাহাড়িদের। এ জমি বর্গা নিয়ে চাষ করেছিলেন আলাউদ্দিন। জমি থেকে ফসল ঘরে তোলা হলে জমিতে শুধু নাড়া অবশিষ্ট ছিল। ইন্দ্রা সেই নাড়া আনতে গেলে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ জানায়, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তারা কাজ করছেন। স্থানীয়দের সহায়তায় আলাউদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। তাকে পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *