মিরপুরে শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহারে হামলার হুমকি, নিরাপত্তা জোরদার

রাজধানীর মিরপুরের শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহার ও তাদের পরিচালিত বনফুল আদিবাসী গ্রীন হার্ট কলেজে ‘হামলা’র উস্কানি দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে। ‘সবুজছায়া স্যোশাল ওয়েলফেয়ার’ নামে একটি ফেসবুক পৃষ্ঠার মাধ্যমে এ উস্কানি দেয়া হয়।

এ ঘটনায় বুধবার কাফরুল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। তবে মঙ্গলবার রাত থেকেই সেখানে নিরাপত্তা জোরদার করেছে পুলিশ।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে, মিরপুর-১৩ নম্বর সেকশনের আহছানল্লাহ রোডের বনফুল কমপ্লেক্সে প্রতিষ্ঠিত বনফুল আদিবাসী গ্রিন হার্ট কলেজটি সুষ্ঠু ও সুশৃংখল পরিবেশে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। বিগত কয়েকদিন ধরে চলা মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ইস্যুকে কেন্দ্র করে গত ৫ সেপ্টেম্বর একটি ফেসবুক পৃষ্ঠা থেকে কলেজের বিরুদ্ধে উস্কানি দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। জিডির সঙ্গে তারা ফেসবুকের সেই পোস্টটির তিনটি স্ক্রিনশটও জুড়ে দিয়েছেন।

সেই পোস্টে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশে বসবাসকারী বৌদ্ধদের সকল কিছু বন্ধ করে দিতে হবে। তাদের পরিচালিত স্কুল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তালা দিতে হবে। তাদের জন্য সকল খাদ্য ও বস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করে দিতে হবে।’ হুমকি বার্তার শেষে এক নম্বর টার্গেট হিসেবে শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহার ও বনফুল আদিবাসী গ্রীন হার্ট কলেজের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

কাফরুল থানার ওসি সিকদার মো. শামীম বলেন, হুমকির বিষয়টি জানার পর বৌদ্ধ বিহার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে জড়িতদের সনাক্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *