তৃতীয় লিঙ্গের চালক চালাবে ডাক বিভাগের মোটর বাইক

ডাক বিভাগের ‘পোস্ট ই-কমার্স’ সেবায় গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দিতে মোটর বাইক নিয়ে ছুটে যাবেন তৃতীয় লিঙ্গের কর্মীরাও।

ইতোমধ্যে ঢাকায় চালু হওয়া এই ‘পোস্ট ই-কমার্স’ সেবা আগামীতে বিভাগীয় ও জেলা শহরেও চালু করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম
তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ডাক পরিবহন ব্যবস্থা শক্তিশালী করা হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে ছোট ছোট রাস্তায় চলাচলের উপযোগী ১৮টি মোটর বাইক কেনার পরিকল্পনা হয়েছে।

আর সেখানে নারীদের পাশাপাশি বেদে বা হিজড়াদের মত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের মাধ্যমে তাদের ক্ষমতায়ণের পরিকল্পনার কথা জানান তারানা হালিম।

তিনি বলেন, “তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর ক্ষমতায়নের বিষয়টি মাথায় রেথে বিভিন্ন বেসরকারি উন্নয়ণ সংস্থার সাথে আলোচনা হয়েছে। বিআরটিএ-এর মাধ্যমে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীকে মোটর বাইক চালানোর প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণ শেষে যারা লাইসেন্স পাবে, তাদের পোস্ট ই-কমার্স সেবার বাইক চালানোর দায়িত্ব দেওয়া হবে।”

ডাক বিভাগ এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারলে পরবর্তীতে অন্যান্য প্রকল্পেও এর প্রতিফলন দেখা যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রতিমন্ত্রী।

সরকারি তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে হিজড়ার সংখ্যা প্রায় ১০ হাজার। প্রান্তিক জনগোষ্ঠী হিসেবে শিক্ষা, চিকিৎসা ও আবাসনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা বৈষম্যর শিকার।

ক্রোমোজম বা হরমনে ত্রুটি অথবা মানসিক কারণে কারও লিঙ্গ পরিচয় নির্ধারণে জটিলতা দেখা দিলে বা দৈহিক লিঙ্গ পরিচয়ের সঙ্গে আচরণগত মিল না থাকলে তাদের চিহ্নিত করা হয় হিজড়া হিসাবে।

বাংলাদেশের সামাজিক বাস্তবতায় এ ধরনের ব্যক্তিদের ‘নিচু’ দৃষ্টিতে দেখা হয় বলে পরিবার থেকে শুরু করে রাষ্ট্র- সব জায়গাতেই তাদের হতে হয় নিগৃহীত, অধিকারবঞ্চিত।

বাংলাদেশ সরকার ২০১৩ সালে হিজড়াদের ‘লিঙ্গ পরিচয়কে’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দিলে সেই বঞ্চনার অবসানের পথ তৈরি হয়।

টেলিকম প্রতিমন্ত্রী জানান, ডাকবিভাগের পরিবহন ব্যবস্থা শক্তিশালী করতে ইতোমধ্যে ১১৮টি যানবাহন পাওয়া গেছে এবং নারী চালকরা ডাকবাহী কভার্ড ভ্যানসহ অন্যান্য যানবাহন চালাচ্ছেন।

“নির্দেশনা ছিল চালকদের ২০ শতাংশ হবেন নারী। আপাতত ১২ জন নারী চালক এসব গাড়ি চালাচ্ছেন। সামনে আরও নিয়োগ হবে, এই সংখ্যা ২২ এ উন্নীত করতে সক্ষম হব।”

এই নারী চালকদের মধ্যে একজন সিলেটে ভারী যানবাহন চালাচ্ছেন জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “এর মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে ডাক বিভাগ একটি ভূমিকা রাখছে।”

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *