তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

গত ২৫ শে আগষ্ট, রোজ শুক্রবার ২০১৭ ইং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল এন্ড কলেজের খেলার মাঠে দিনব্যাপী এক বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যে এক গেট টুগেদার অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইন্ডিজিনাস স্টুডেন্ট এসোশিয়েসন এর সার্বিক সহযোগিতা ও তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত এই মিলনমেলা ও গেট টুগেদার অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ঢাবি জুম্ম শিক্ষার্থী পরিবার বনাম জাবি আদিবাসী শিক্ষার্থীদের প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। উত্তেজনাপূর্ণ এ ম্যাচটি গোলশুন্য ড্র হয়। সকাল ১১ টায় অনুষ্ঠিত প্রীতি ফুটবল ম্যাচের উদ্বোধন করেন জাবি’র শারীরিক শিক্ষা বিভাগের সহকারী ক্রীড়া পরিচালক উথোয়াইচিং রোয়াজা।

জাবি বনাম ঢাবি আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যেকার প্রীতি ফুটবল ম্যাচ পরবর্তীতে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের আদিবাসী ছাত্রীদের জন্য উপভোগ্য আরেকটি খেলা “মিউজিক্যাল বল পাসিং” এর আয়োজন করা হয়। পরে দুপুরবেলায় খেলার মাঠের পাশে মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশের সমৃদ্ধ সবুজ এ ক্যাম্পাসের সুশীতল গাছের ছায়ায় চলে এক প্রীতিভোজ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জুম্ম শিক্ষার্থীরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবেন বলে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আদিবাসী শিক্ষার্থীরা আগে থেকেই যথাযথ প্রস্তুতি সম্পন্ন করে রেখেছিল।

দুপুর ৩.০০ টায় অনুষ্ঠিত হয় জাবি বনাম রাবি আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যেকার আরেকটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। ম্যাচটিতে উভয় দলের খেলোয়ারদের দারুণ নৈপুণ্যে উপস্থিত দর্শকরা বেশ আকর্ষিত হয়। পরে রাবি জুম্ম শিক্ষার্থীরা ১-০ গোলে জাবি আদিবাসী শিক্ষার্থীদের পরাজিত করে । এর পরে মাঠের একপাশে এ আয়োজনের উপর আলোচনা ও র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জাবি’র শারিরীক শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক উথোয়াইচিং রোয়াজা। তিনি বলেন,- “তোমাদের এই উদ্যোগ দেখে আমি সত্যিই আনন্দিত।পারষ্পরিক ভ্রাতৃত্ব ও সংহতি নির্মাণের এই উদ্যোগটি আগামীতেও চলমান রাখুন এবং অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেও ছড়িয়ে দিন।” এসময় আরো বক্তব্য রাথেন রাজশাহী মহানগর পিসিপি’র সভাপতি দীপেন চাকমা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি অমরশান্তি চাকমা। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী রেঙইয়ং ম্রো-র পরিচালনায় র‌্যাফেল ড্র, পুরষ্কার বিতরণ এবং অনুষ্ঠানের সভাপতি মংচোয়াং রাখাইন অভি’র সমাপনি বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আয়োজন সমাপ্ত করা হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *