মার্কিনী হামলা মোকাবেলায় উ. কোরিয়ার ৩৫ লাখ মানুষের সেনাবাহিনীতে যোগদান

পিয়ংইয়ং বলেছে, সম্ভাব্য মার্কিন হামলা মোকাবেলা করতে অন্তত ৩৫ লাখ মানুষ দেশটির সেনাবাহিনীতে নাম লিখিয়েছে। উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীনদের মুখপত্র রোডং সিনমুন এই খবর দিয়েছে। একে মার্কিন হামলা রুখতে উ. কোরীয় জনতার জাগরণ বলে উল্লেখ করেছে ওই পত্রিকাটি।
উ. কোরিয়ার ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষার বিপরীতে মার্কিন প্রস্তাবে সমর্থন দিয়ে জাতিসংঘের নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর থেকে পিয়ংইয়ং-ওয়াশিংটন উত্তেজনা নতুন মাত্রা পায়। শুরু হয় দু্‌ই দেশের শীর্ষ নেতার পারস্পরিক হুমকিধামকি। এক পর্যায়ে উ. কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের গুয়ামের মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পরিকল্পনা ঘোষণা করে। জবাবে দেশটিকে ‘ধূলায় মিশিয়ে দেওয়া’র হুমকি দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। পারস্পরিক হুমকির সেই ধারাবাহিকতা আজও অব্যাহত রয়েছে।

রোডং সিনমুনকে উদ্ধৃত করে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনা নতুন করে তুঙ্গে ওঠার পরপরই উত্তর কোরিয়ার সেনাবাহিনীতে ৩৫ লাখ মানুষ নাম লিখিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে হাজার হাজারবার প্রতিশোধ নেয়ার জন্য উত্তর কোরিয়ার সব মানুষ জেগে উঠছে।

রোডং সিনমুনের খবর অনুযায়ী, দেশটির সেনাবাহিনীতে যারা নাম লিখিয়েছে তাদের মধ্যে সাবেক সেনাসদস্য এবং ছাত্ররা রয়েছেন।

এদিকে, গত বুধবার পিয়ংইয়ংয়েরে কিম ইল-সুং চত্বরে লাখ লাখ মানুষ বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর এ বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *