কাহারোলে সরঞ্জা আদিবাসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বেহাল অবস্থা

দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার সরঞ্জা আদিবাসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নানা সমস্যায় জর্জরিত। তিনজন শিক্ষক থাকলেও ১২ দিন যাবত্ সহকারী শিক্ষিকা ছুটি ছাড়াই অনুপস্থিত রয়েছেন। অনুপস্থিতির কারণে স্কুলের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ব্যাহত হচ্ছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, সহকারী শিক্ষিকা পাপিয়া সুলতানা ১ জুলাই হতে গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত স্কুলে উপস্থিত ছিলেন না। তিনি আরও জানান, পাপিয়া সুলতানার সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে তিনি পাননি।

এদিকে গতকাল কাহারোল উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আফজাল হোসেন এ প্রতিনিধিকে জানান, সরঞ্জা আদিবাসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কাগজে-কলমে ৬০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে, বাস্তবে গতকাল পর্যন্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩০ জন উপস্থিত ছিল। প্রধান শিক্ষককে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, বৃষ্টির কারণে অনেকে আসেনি। এলাকাবাসি ও অভিভাবকরা জানান, স্কুলে যাতায়াতের রাস্তা না থাকার কারণে শিক্ষার্থীরা স্কুলে যেতে পারে না। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন শিক্ষার্থী জানান, শিক্ষকেরা স্কুলে ক্লাস ঠিকমত নেন না এবং সময়মত স্কুলে উপস্থিত হন না। লেখাপড়ার মান নিয়ে খোদ প্রশ্ন তুলেছেন অভিভাবকেরা। অভিভাকদের দাবি সরকার যেখানে লেখাপড়ার জন্য লাখ লাখ টাকা খরচ করছেন অথচ সেখানে সরঞ্জা আদিবাসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লেখাপড়ার মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ এলাকাবাসী। বর্তমানে তিনজন শিক্ষক থাকলেও একজন শিক্ষক ১২ দিন হতে ছুটি ছাড়াই স্কুলে অনুপস্থিত রয়েছেন। যে দুইজন শিক্ষক রয়েছেন তারা সময়মত স্কুলে আসেন না।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *