‘মাই বাইসাইকেল’ প্রদর্শনী সেন্সর বোর্ডে আটকে থাকায় বিরক্তি প্রকাশ: অমিত চাকমা

চাকমা ভাষায় নির্মিত বাংলাদেশের প্রথম চলচ্চিত্র ‘মাই বাইসাইকেল’ প্রদর্শনী সেন্সর বোর্ডে আটকে থাকায় বিরক্তি প্রকাশ করে কানাডার ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট ও ভাইস চ্যান্সেলর অমিত চাকমা বলেছেন, বাংলাদেশে সেন্সর বোর্ডই থাকা উচিত না।

কানাডার ১৫০তম জন্মদিন উপলক্ষে টরন্টো ফিল্ম ফোরাম আয়োজিত তিনদিনের মাল্টিকালচারাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের সমাপনী দিনে শুভেচ্ছা বক্তৃতায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

অমিত চাকমা আরও বলেন, পশ্চিমা উন্নত দেশগুলোতে সেন্সর বোর্ডের কোনো অস্তিত্ব নেই, কিন্তু বাংলাদেশ, ভারতের মতো দেশগুলোতে সেন্সর বোর্ড চলচ্চিত্র শিল্প নিয়ন্ত্রণ করছে।

মাই বাই সাইকেল সিনেমার কাহিনীর উল্লেখ করে অমিত চাকমা বলেন, সিনেমাটি আমি আজই প্রথম দেখলাম। এতে এমন কি আছে- যার জন্য এর প্রদর্শনী আটকে দিতে হবে। সাধারণ একটি পরিবারের জীবনের টানাপড়েনের গল্প নিয়ে এই সিনেমা। এতে এমন কোনো স্পর্শকাতর দৃশ্য নেই যার জন্য এই সিনেমার প্রদর্শনী আটকে দিতে হবে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *