রমেল চাকমার মৃত্যু এবং মরদেহ পোড়ানোর ঘটনায় রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়ক অবরোধ

রাঙামাটির নানিয়াচরে সেনাবাহিনীর নির্যাতনে মৃত এইচএসসি পরীক্ষার্থী রমেল চাকমার মরদেহ জোর করে দাহ করার প্রতিবাদে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক সড়ক অবরোধ করে রেখেছে রমেল চাকমা হত্যার প্রতিবাদ কমিটির নেতাকর্মীরা।
শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে সড়কের উপর গাছের গুড়ি ফেলে এই অবরোধ শুরু করেন তারা। জানা যায়,আত্মীয় স্বজনসহ ও প্রথা অনুসারে তার মরদেহ দাহক্রিয়া সম্পন্ন না করে পেট্রোল ঢেলে সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রনাধীনে দাহ কার্য সম্পন্ন করা হয় । এরই প্রতিবাদে সাধারণ জনগণ ক্ষুব্ধ হয়ে সড়ক অবরোধ করেন।
এইচএসসি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী রমেল চাকমাকে গত ৫ এপ্রিল সকালে নানিয়াচর সরকারি কলেজ থেকে সেনাবাহিনীর সদস্যরা আটক করে। অভিযোগ উঠে আটকের পর তাকে নির্যাতন করা হয়। এক পর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে এ অবস্থায় তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করতে গেলে অবস্থা খারাপ হওয়ায় পুলিশ রমেলকে গ্রহণ করেনি। পরে তাকে চট্টগ্রামে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৯ এপ্রিল রমেল চাকমা মারা যান। কিন্তু রমেলের মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর না করে শুক্রবার দুপুরে নিরাপত্তা বাহিনীর তত্ত্বাবধানে দাহ করা হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *