সীতাকুন্ডে নিহত, আহতের ঘটনায় সিপিবির শোক: তদন্ত কমিটি গঠন ও দায়ীদের শাস্তি দাবি

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মোহাম্মদ শাহ আলম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড রুহিন হোসেন প্রিন্স আজ ৫ জুন ২০২২ এক বিবৃতিতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের কনটেইনার ডিপোয় ভয়াবহ বিস্ফোরণে অসংখ্য মানুষ নিহত হওয়ায় গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন এবং আহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন,আমাদের দেশে বিত্তবান প্রভাবশালীদের অবহেলায় মানুষের মৃত্যু নিত্যনৈমিত্তিক সাধারণ ঘটনায় পরিণত হয়েছে। ঘটনা ঘটার পর সরকারের পক্ষ থেকে শোক বিবৃতি এবং কিছু প্রতিশ্রুতি আসে কিন্তু শ্রমিকসহ সাধারণ মানুষের জীবন নিরাপদ হয় না। আমরা দেখেছি, এর আগে ঢাকার নিমতলীর চুড়িহাট্টা, নারায়ণগঞ্জের সেজান জুস কারখানায় লোভের আগুনে পুড়ে মানুষ মরেছে কিন্তু তার কোনো বিচার হয়নি। এবারও দেখা গেলো সরকারি দলের আঞ্চলিক পর্যায়ের প্রভাবশালী নেতার লোভের আগুনে সীতাকুন্ডু জ্বলছে। আমরা মনে করি, সেখানে বিপদ ঘটার সমূহ সম্ভাবন থাকার পরেও তা মোকাবেলায় কোনো পূর্বপ্রস্তুতি ছিল না। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ কনটেইনারে বিস্ফোরণ, সঙ্গে সঙ্গে মালিকপক্ষের দায়িত্বশীল আচরণ না করায়, শ্রমিকদের সুরক্ষা না থাকায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে, এই ভয়াবহ ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত, নিহত পরিবারকে ক্ষতিপূরণ এবং আহতদের সুচিকিৎসা, ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসনের দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয় ,ঘটনার পরপর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষ তাদের জীবনের ঝুঁকি উপেক্ষা করেযেভাবে আহতদের পাশে দাঁড়িয়েছে তা আমাদেরকে আশাবাদী করেছে। সাধারণ মানুষের এই শক্তি আমাদের প্রেরণার উৎস।একইসঙ্গে আমাদের কমরেড, শুভানুধ্যায়ীরাও এই বিপদে এগিয়ে এসেছেন। আমরা মনে করি, এটাই হলো মনুষ্যত্বের শক্তি। এই শক্তিকে জাগ্রত রেখে অনিয়ম, অনাচার দূর করে মানুষ বাঁচানোর সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.