বিশেষ কার্ডে দেওয়া পণ্যের দাম অর্ধেক করতে হবে: সিপিবি নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স

আইপিনিউজ ডেক্স(ঢাকা): আগামী ২৮ মার্চ বাম জোটের ডাকা হরতালের সমর্থনে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেছেন, বিশেষ কার্ডের মাধ্যমে যে দামে কয়েকটি নিত্যপণ্য গরিব মানুষদের দেওয়ার কথা বলা হচ্ছে, তা যৌক্তিক নয়। ওই সব পণ্যের দাম অর্ধেকে নামিয়ে আনতে হবে। সংখ্যা ৩ গুণ করতে হবে, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি বাদ দিয়ে প্রকৃত ভুক্তভোগীদের কাছে পণ্য পৌছে দিতে হবে।পণ্য তালিকায় চালসহ অন্যান্য নিত্য পণ্য যুক্ত করতে হবে। তিনি বলেন, আমরা খোজ নিয়ে জেনেছি ৩টি ওয়ার্ডের মানুষকে এক দিন পণ্য নিতে আসতে বলা হচ্ছে। এতে যাতায়াত ও লাইনে দাড়িয়ে পণ্য নিতে যেসময় ব্যয় হবে, তা হবে, ‘খাজনার থেকে বাজনা বেশি’। ঐ সময়ের আয় থেকে সাধারণ মানুষ বঞ্চিত হবে। এ জন্য বিশেষ কার্ডের পণ্য ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে পৌছে দিতে হবে।
আজ ২০ মার্চ বিকাল সাড়ে ৩ টায় ঢাকার পল্টন মোড়ে ২৮ মার্চ হরতালের সমর্থনে সিপিবি’র পল্টন শাখা আয়োজিত সমাবেশে রুহিন হোসেন প্রিন্স এসব কথা বলেন।
সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জলি তালুকদার, মুশিকুল ইসলাম শিমুল। এ সময়ে সংগঠনটির নেতাকর্মীদের মধ্যে আহসান হাবিবলাবলু, রাগিব আহসান মুন্না, সেকান্দার হায়াৎ প্রমূখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।।
রুহিন হোসেন প্রিন্স ২৮মার্চ দেশব্যাপী অর্ধদিবস হরতাল সফল করার আহবান জানিয়ে বলেন, এ হরতাল সাধারণ মানুষের জান বাঁচানোর জন্য।তিনি গ্যাসের দাম বাড়ানোর গণশুনানীর বন্ধের দাবি জানিয়ে বলেন গ্যাসের দাম বাড়লে বিদ্যুৎসহ অন্যান্য পণ্যের দাম বাড়বে। নিত্য পণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে অতিষ্ঠ জনগণ আরো দুরবস্থায় পড়বে। সরকার সব মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা দিতে না পারলেও সব মানুষের পকেট কাটতে ওস্তাদি ভূমিকা পালন করছে। এটা দেশের জনগণ মেনে নেবে না। ২৮ মার্চ হরতাল পালনের মাধ্যমে সরকারের গণবিরোধী নীতি ও দু:শাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাবে। সমাবেশ শেষে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় হরতালের সমর্থনে প্রচারপত্র বিতরণ করা হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.