সুসঙ্গ দূর্গাপুরে ‘কমরেড মণিসিংহ স্মৃতি জাদুঘর’ উদ্বোধন ৩১ ডিসেম্বর

ব্রিটিশবিরোধী সংগ্রামী, টঙ্ক আন্দোলনের মহানায়ক, মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রবাসী বিপ্লবী সরকারের উপদেষ্টা, শ্রমিক-কৃষক-মেহনতি মানুষের মুক্তির সংগ্রামের অন্যতম নেতা, উপমহাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং সাবেক সভাপতি কমরেড মণি সিংহের স্মৃতি সংরক্ষণ করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অনুদানেনির্মিত “কমরেড মণি সিংহ স্মৃতি জাদুঘর” আগামী ৩১ ডিসেম্বর উদ্বোধনকরা হবে। নেত্রকোনার সুসঙ্গ দূর্গাপুরে নির্মিত এই জাদুঘর যৌথভাবে উদ্বোধন করবেন ঐতিহাসিক টঙ্ক আন্দোলনের প্রত্যক্ষদর্শী শ্রীমতি কুমুদিনী হাজং, কমরেড মণি সিংহ মেলা উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক শ্রী দূর্গা প্রসাদতেওয়ারী, বাংলাদেশের প্রবীণ কমিউনিস্ট নেতা কমরেড সহিদুল্লাহ চৌধুরী ওকমরেড মনজুরুল আহসান খান ও নেত্রকোনা-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য মানু মজুমদার। এছাড়া প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ থেকে ৬ জানুয়ারি২০২২ পর্যন্ত কমরেড মণি সিংহ মেলা উদযাপিত হবে।

এ উপলক্ষ্যে আজ ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ বিকাল ৪ টায় পুরানা পল্টনের মুক্তি ভবনের প্রগতি সম্মেলন কক্ষে কমরেড মণি সিংহ মেলা উদযাপন কমিটির সংবাদ সম্মেলনঅনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় শহীদের রক্তমাখা স্মৃতিবিজড়িত টঙ্কআন্দোলনের ইতিহাসকে সমুন্নত রাখতে বিশিষ্ট নাগরিকদের উদ্যোগে নেত্রকোনারসুসঙ্গ দূর্গাপুরে “টঙ্ক শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ” নির্মাণ করা হয়। স্তম্ভটি নির্মাণে জমি দান করেছেন প্রয়াত স্থানীয় সাংসদ জালাল উদ্দিন তালুকদার,স্মৃতিস্তম্ভের নকশা করেছেন স্থপতি ও কবি রবিউল হোসাইন, স্তম্ভের নির্মাণ নকশা ওস্থাপনা তৈরিতে সহযোগিতা করেছেন প্রখ্যাত প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ। নকশায় স্মৃতি জাদুঘর থাকলেও আর্থিক সামর্থ্যরে অভাবে এতদিন তা নির্মাণ করা সম্ভব হয়নি। বর্তমানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতিমন্ত্রণালয়ের অনুদানে নির্মিত হয়েছে “কমরেড মণি সিংহ স্মৃতি জাদুঘর।”জাদুঘরটি একটি ট্রাস্টের মাধ্যমে পরিচালিত হবে। কমরেড মণি সিংহ স্মৃতিজাদুঘর প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে গৌরবগাঁথা ইতিহাসের প্রাণকেন্দ্র হিসেবেগুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এছাড়া ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ থেকে ৬ জানুয়ারি ২০২২ পর্যন্ত সাতদিনব্যাপী প্রতিবছরের মতো এবারও কমরেড মণি সিংহ মেলা নেত্রকোনায় সুসঙ্গ দূর্গাপুরের টঙ্ক শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, দেশ বরেণ্য বুদ্ধিজীবী, বিভিন্ন শ্রেণিপেশার নেতৃবৃন্দ, ও সংস্কৃতিকর্মীগণ মেলায় আলোচনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। মেলাস্থলে প্রতিদিন আলোকচিত্র প্রদর্শনী, শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, ঐতিহ্যবাহী হস্তশিল্প ওখাবারের দোকানসহ নানা আয়োজন থাকবে।

কমরেড মণি সিংহ মেলা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক এম. এম.আকাশের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মণি সিংহ মেলা উদযাপন কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট হাসান তারিক চৌধুরী। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ মাহাবুবুল আলম, সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আব্দুল কাদের,মেলা উদযাপন কমিটির সদস্য আসলাম খান, অর্ণব সরকার, মেহেদী হাসান নোবেল,বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ , সাংগঠনিক সম্পাদক সুমাইয়া সেতু সহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *