তানোরের ইউএনও’র অপসারণের দাবিতে রাজশাহীতে আদিবাসীদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মালশিরা (চৌবাড়িয়া) গ্রামে আদিবাসী পরিবারকে মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার ও উচ্ছেদের হুমকিদাতা তানোর ইউএনও পঙ্কজ চন্দ্র দেবনাথকে অপসারণ এবং ভূমিদস্যু হামিদুর রহমানের গ্রেফতারের দাবিতে জাতীয় আদিবাসী পরিষদ রাজশাহী জেলা কমিটির উদ্যোগে আজ ২১ নভেম্বর ২০২১ রবিবার বেলা ১১টায় রাজশাহীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন আদিবাসীরা।

জাতীয় আদিবাসী পরিষদের রাজশাহী জেলার সভাপতি বিমল চন্দ্র রাজোয়াড়-এর সভাপতিত্বে মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক গণেশ মার্ডি, রাজশাহী জেলা সাধারণ সম্পাদক সুশেন কুমার শ্যামদুয়ার, কেন্দ্রীয় সদস্য বিভূতী ভূষণ মাহাতো, রাজকুমার শাও, মালশিরা গ্রামের ভুক্তভোগী দেবেন মুর্মু, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডা, সহ-সভাপতি সাবিত্রী হেমব্রম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির সভাপতি রতিশ টপ্য, আদিবাসী যুব পরিষদের সদস্য উত্তম কুমার মাহাতো প্রমুখ।

সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি এবং রাজশাহী মানবাধিকার জোটের সহ-সভাপতি কল্পনা রায়।

মানববন্ধনে বক্তারা, তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পঙ্কজ চন্দ্র দেবনাথের অপসারণ ও বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও ভূমি জববরদখল চেষ্টাকারী ভূমিদস্যু হামিদুর রহমানকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান। তানোরের ভুক্তভোগী আদিবাসী পরিবার ও মালশিরা গ্রামের আদিবাসীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জোর দাবি জানান বক্তারা। তানোর উপজেলায় আদিবাসীদের জন্য বরাদ্দ বন্টনের সুষ্ঠু তদন্তেরও দাবি জানানো হয়।

গত ১৭ নভেম্বর ইউএনও পঙ্কজ চন্দ্র দেবনাথ বিষয়টি সমাধানের নামে ভুক্তভোগী আদিবাসী পরিবারকে ডেকে নিয়ে ভূমিদস্যু হামিদুর রহমানের পক্ষ হয়ে ভুক্তভোগী দেবেন মুর্মুকে মিথ্যামামলা, গ্রেফতার ও উচ্ছেদের হুমকি দেয়। ইউএনও দেবেন মুর্মুকে উদ্দেশ্য করে বলেন আপনিই হচ্ছেন মিথ্যাবাদী, ষড়যন্ত্রকারী এবং হামিদুরকে বলেন যে এর নামের মামলা করেন এবং পুলিশকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী আদিবাসী পরিবার সহ অত্র এলাকার আদিবাসীরা নিরাপত্তাহীনতায় বসবাস করছে।

উল্লেখ্য, গত ২৩ অক্টোবর মধ্যরাতে আনুমানিক রাত ১টার সময় রাজশাহী জেলার তানোর উপজেলার মালশিরা গ্রামের আদিবাসী সাঁওতাল জাতিসত্তার দেবেন মুর্মু (৪৫) এর বাড়িতে হামলা করেন স্থানীয় ভূমিদস্যু হামিদুর রহমানের নেতৃত্বে ৩০-৪০ জন ভাড়াটিয়া গুন্ডা বাহিনী। হামলাকালীন সময়ে হামলাকারীরা অন্যান্য আদিবাসীদের ঘরবাড়িতে বাহিরে থেকে তালা মেরে আটকে রাখা হয়। দীর্ঘদিন থেকেই ভূমিদস্যু হামিদুর রহমান আদিবাসী দেবেন মুর্মু’র পৈত্রিক জমি নিজের জমি দাবি করে হুমকি ও উচ্ছেদের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *