বকশীগঞ্জে ৬ দফা দাবিতে আদিবাসীদের বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদান

জামালপুরের বকশীগঞ্জে ৬ দফা দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে স্থানীয় আদিবাসীরা। আজ বুধবার বেলা ১২ টার দিকে পৌর এলাকার প্রধান প্রধান সড়ক বিক্ষোভ মিছিল শেষে বকশিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুন মুন জাহান লিজার কাছে ৬ দফার দাবিতে স্মারক লিপি প্রদান করে।

বকশিগঞ্জ, শ্রীবরদী, ঝিনাইগাতী, নালিতাবাড়ি উপজেলার বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন, ট্রাইবাল ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ও পাহাড়ি এলাকার কয়েকটি গ্রামের উন্নয়ন কমিটি এ সমাবেশের আয়োজন করেন।

বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠনের (বাগাছাস) সভাপতি রাহুল রাকসাম সভাপতিত্বে, বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠনের (বাগাছাস) কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রনু নবারেক, নালিতাবাড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি সোহেল রেমা, বকশীগঞ্জ শাখার সাধারণ সম্পাদক অনন্ত ম্রং, শ্রীবরদী বালিজুড়ি ভূমি সংরক্ষণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ব্রতীন ম্রং,জয়ন্তি মানখিন, পিসকিলা ম্রং প্রমুখ।

বক্তারা বলেন- গত ২৫ সেপ্টেম্বর সকালে কামালপুর ইউনিয়নের বালিজুড়ি গ্রামের অঞ্জলী রাংসার বাড়িতে প্রবেশ করে হামলা ভাংচুর ও বিনা কারনে অঞ্জলি রাংসার পুত্র শুভ রাংসাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন বনবিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

তাই তারা ৭২ ঘন্টার মধ্যে ডুমুরতলা বিট কর্মকর্তা জামান মিয়া ও ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা রবিউল ইসলামকে প্রত্যাহার, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা, নিরাপত্তা প্রদান ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার,আদিবাসীদের বসতভিটা গৃহ নির্মাণ, সংস্কার কাজে বাধা দেয়া বন্ধ করতে হবে সহ ৬ দফা দাবি জানান।

বিক্ষোভ সমাবেশে বকশিগঞ্জ ও শেরপুর জেলার শ্রীবরদী, ঝিনাইগাতী, নালিতাবাড়ি উপজেলা থেকে প্রায় পাঁচ শতাধিক আদিবাসী অংশগ্রহণ করেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *