জাতীয় আদিবাসী পরিষদের আয়োজনে মহাদেবপুরে ২৬তম ঐতিহ্যবাহী কারাম উৎসব অনুষ্ঠিত

সূভাষ চন্দ্র হেমব্রম , রাজশাহী: “আদিবাসীদের স্বতন্ত্র ঐতিহ্য, ভাষা ও সংস্কৃতি একটি জাতির আত্মপরিচয়” প্রতিপাদ্যে আদিবাসী বিভিন্ন জাতিসত্তাসমূহের ঐতিহ্যবাহী কারাম উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর উপজেলার ডাকবাংলো মাঠে জাতীয় আদিবাসী পরিষদের আয়োজনে ২৬তম ঐতিহ্যবাহী কারাম উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঐতিহ্যবাহী কারাম উৎসবে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। কারাম উৎসবে ঢোল মাদলের তালে তালে বিভিন্ন অঞ্চলের আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক দলের দলীয় নৃত্য পরিবেশনা ও প্রতিযোগিতায় মুখরিত হয়ে উঠে। বিভিন্ন জাতিসত্তার ২০টি আদিবাসী সাংস্কৃতিক দল অংশগ্রহণ করেন।

২৬তম আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী কারাম উৎসবের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে উদ্বোধন করেন মহাদেবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আহসান হাবীব ভোদন ও মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান।

জাতীয় আদিবাসী পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সবিন চন্দ্র মুন্ডার সভাপতিত্বে রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদম নরেন চন্দ্র পাহানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান। এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহাদেবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আহসান হাবীব ভোদন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহাদেবপুর সার্কেল এ টি এম মাইনুল ইসলাম, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বিমল চন্দ্র রাজোয়ার, কোষাধ্যক্ষ সুধীর তির্কী, দপ্তর সম্পাদক সূভাষ চন্দ্র হেমব্রম. সদস্য বিভূতী ভূষণ মাহাতো, নাটোর জেলা সভাপতি প্রদীপ লাকড়া, সাধারণ সম্পাদক কালিদাস মুন্ডা, মানবাধিকার কর্মী অনিক অনিক আসাদ, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের নওগাঁ জেলা উপদেষ্টা এ্যাড. শহীদ হাসান সিদ্দিকী (স্বপন), জয়নাল আবেদিন মুকুল, মহাদেবপুর উপজেলা উপদেষ্টা মোঃ আজাদুল ইসলাম আজাদ, মানবাধিকার কর্মী অনিক আসাদ, রাইগাঁ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আরিফুর রহমান আরিফ, আরকো’র নির্বাহী পরিচালক সজল কুমার চৌধুরী, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ মাহাদেবপুর উপজেলা সভাপতি দিলীপ পাহান, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নকুল পাহান, সহ-সভাপতি সাবিত্রী হেমব্রম সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডা প্রমূখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে জাতীয় আদিবাসী পরিষদ, আদিবাসী যুব পরিষদ ও আদিবাসী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয়, বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা আদিবাসীদের আদিবাসী হিসেবে সাংবিধানিক স্বীকৃতি, সমতলের আদিবাসীদের জন্য পৃথক মন্ত্রণালয় ও স্বাধীন ভূমি কমিশন গঠন, জাতীয় বাজেটে আদিবাসীদের জন্য বরাদ্দ বৃদ্ধি করা, বিভিন্ন স্থানে আদিবাসী সাংস্কৃতিক একাডেমি গুলোতে আদিবাসী নিয়োগ ও সাংস্কৃতিক একাডেমি গুলো কার্যকর করে তোলা, আদিবাসীদের সংস্কৃতি রক্ষা সহ আদিবাসীদের ৯দফা দাবি বাস্তবায়নে রাষ্ট্রের প্রতি দাবি জানান। এছাড়াও আদিবাসীদেরকে বিভক্তকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকারও আহ্বান জানান বক্তারা।

এবারের ২৬তম কারাম উৎসবে আদিবাসী সাংস্কৃতিক দলসমূহের দলীয় পরিবেশনা থেকে বাছাই করে ৩টি সাংস্কৃতিক দলকে ১টি করে এলইডি টেলিভিশন পুরস্কার দেওয়া হয়। প্রথম স্থান অধিকারী দল পত্নীতলা উপজেলার চকনন্দন গ্রামের দল, দ্বিতীয় অধিকারকারী দল নওগাঁ সদর উপজেলার কীর্তিপুর গ্রামের দল ও তৃতীয় স্থান অধিকারকারী দল সাপাহার উপজেলার ফোকন্দা গ্রামের দল। এছাড়াও অংশগ্রহণকারী প্রতিটি সাংস্কৃতিক দলকে একসেট (৮টি) করে শাড়ী উপহার দেওয়া হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *