বিলাইছড়ি সদর হাসপাতালে ‘পার্বত্য জেলা শিশু উন্নয়ন প্রকল্প’ কর্তৃক পিপিই বিতরণ

রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি উপজেলায় সদর হাসপাতালে কম্পেশন ইন্টান্যাশনাল বাংলাদেশের অর্থায়নে ‘আগাপে’ পার্বত্য জেলা শিশু উন্নয়ন প্রকল্প’ পাংখোয়া পাড়া, যমুনাছড়ি এবং লতাপাহাড় তিন প্রকল্প মিলে করোনা সহযোদ্ধাদের পিপিই প্রদান করেছে।

প্রদানকালীন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উক্ত উপজেলায় নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান,উৎপলা চাকমা।

গত ২২ আগস্ট রবিবার সকাল ১২টায় সময়ে বিলাইছড়ি সদর হাসপাতালে এই বিতরণ অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয়।

বিলাইছড়ি উপজেলায় এই পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছে ৩জন এবং এযাবৎ সদর হাসপাতালে প্রায় ২০জন করোনা রোগী ভর্তি হয়েছে। করোনা সংক্রামনে সংখ্যা দিন দিন বেড়েছে বলে জানান স্বাস্থ্য কর্মী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, এই কঠিন সময়ে আমরা যদি একের অপরে পাশে দাঁড়ায়, সবাই সবার সহযোগিতা হাত বাড়ায় তবে এই মহামারী মোকাবেলা থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। এইধরনের কাজ সবসময় প্রশংসনীয়। আজকে আপনারা অনেক মেডিকেল সরঞ্জাম দিয়ে করোনা সহ যোদ্ধাদের সাহস যুগিয়েছেন। আমরা চাইব সবাই একসাথে হাটতে শিখতে হবে আর এটা মনে রাখতে হবে আমাদের জয় করতেই হবে।

তিনি আরও জানান, আমরা সবাই সাস্থ্য বিধি মেনে চলি এবং আমাদের আশেপাশে যাঁরা আছেন তাদেরকেও সচেতন করার দায়িত্ব নিজেরাই কাঁধে নিতে হবে।

গত কয়েকদিন আগে হেলিকপ্টার যোগে সরকার কতৃক ঘোষিত গণ টীকা কার্যক্রম উক্ত উপজেলায় দূর্গম বড়থলি ইউনিয়নে সফলভাবে টীকা প্রদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন করায় এলাকাবাসীদের কাছে খুব প্রশংসিত হয়েছিলেন তিনি।

এছাড়াও বিলাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রশ্মী চাকমা সাস্থ্য-বিধি উপর বক্তব্য প্রদান করেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *