মিঠাপুকুর উপজেলায় আদিবাসী ও দলিত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে খাদ্য সহায়তা

মহামারী করোনা ভাইরাস এর প্রভাবে সারাদেশের ন্যায় রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলায় লকডাউন কারনে ঘরে বসে থাকায় উপার্জনহীন হয়ে পড়ে আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায় এর নিম্ন আয়ের মানুষজন। এতে করে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন কাটছিল তাদের। করোনা সংকটে মিঠাপুকুর উপজেলায় কর্মহীন হয়ে পড়া ১১০০ আদিবাসী ও দলিত প্রাপ্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে। সুইজারল্যান্ড দুতাবাসের অর্থায়নে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন ও ইউএনডিপি-হিউম্যান রাইটস এন্ড জাস্টিজ প্রোগ্রামের সহায়তায় উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে শুক্রবার (১৬ জুলাই) সকাল ১১টায় স্থানীয় মিঠাপুকুর সরকারি মডেল হাইস্কুল মাঠে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণে সহায়তা দেয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অবলম্বন ও ডপস।

মিঠাপুকুর উপজেলার ১১০০টি আদিবাসী ও দলিত পরিবারের প্রত্যেক পরিবারকে খাদ্য সহায়তা হিসেবে চাল-১২ কেজি (মিনিকেট), আটা-৬ কেজি, মুসুর ডাল-৩ কেজি, চিনি-১ কেজি, তেল-২লিটার, লবন- ১ কেজি, চিড়া-১ কেজি, লাইফবয় সাবান-৬টি, সুজি- ১ কেজির নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর একটি করে প্যাকেট দেয়া হয়।

নিরাপদ সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় মিঠাপুকুর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নিরঞ্জন চন্দ্র মহন্ত, আদিবাসী-বাঙালি সংহতি পরিষদের আহবায়ক এ্যাড. সিরাজুল ইসলাম বাবু, অবলম্বনের নির্বাহী পরিচালক প্রবীর চক্রবর্তী, ডপস এর নির্বাহী পরিচালক উজ্জ্বল চক্রবর্তী, মানবাধিকার কর্মী শহিদুল ইসলাম, আদিবাসী নেতা বাবুল লাল মার্ডি, উৎপল মিনজ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *