করোনা রোধে সরকারের তৃণমূল পর্যায়ে নাগরিক কমিটি গঠনের সিদ্ধান্তঃ সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের অভিনন্দন

দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ রোধে সরকারের তৃণমূল পর্যায়ের শক্তিশালী নাগরিক কমিটি গঠনের সিদ্ধান্তকে অভিনন্দন জানিয়েছে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন।

আজ ১২ জুলাই সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমেদ এক বিবৃতিতে এ অভিনন্দন জানান।

বিবৃতিতে আরো বলেন, আমরা মনে করি সরকার ও প্রশাসনের করোনা মোকাবেলায় যথেষ্ঠ আন্তরিকতা সত্বেও সাধারণ জনগণের জীবন জীবিকার তীব্র সংকট কর্মহীনতা, বেকারত্ব, সরকার ঘোষিত সর্বান্তক লকডাউন কর্মসূচির সফলতা পাওয়া যাচ্ছে না। অন্যদিকে মুসলিম সম্প্রদায়ের পবিত্র ঈদুল আযহা অতি নিকটে হওয়ায় মানুষের মধ্যে নানান ধরণের টানাপোড়ন চলছে।

এমতাবস্থায় লকডাউন শিথিল করা যেমন জরুরী হয়ে পড়েছে তেমনি- এই করেনা বিপর্যয়কে মোকাবেলার ক্ষেত্রেও জনসম্পৃক্ত ও সচেতনতামূলক কর্মসূচি জরুরী ভিত্তিতে গ্রহণ করা দরকার। সেক্ষেত্রে আমরা মনেকরি ঈদে ঘরমুখো মানুষদের যাতায়াতের সময় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরনের কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। করোনা ভ্যাক্সিন ও অক্সিজেনের সরবরাহ বৃদ্ধি সহ চিকিৎসা ব্যবস্থার জোরদার এবং শক্তিশালী নাগরিক কমিটি গঠন, পাশাপাশি অন্যান্ন সামুগ্রীর সাথে সরকারীভাবে প্রত্যেক পরিবারের জন্য মাক্স ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ এবং দুঃস্থ অসহায় ও কর্মহীন শ্রমজীবি কৃষক পরিবারদের জন্য উপযুক্ত খাবারের ব্যবস্থা করতে হবে।

একই সাথে দেশ-বিদেশে অবস্থানরত এবং দেশের বিত্তবান দেশপ্রেমিক মানুষদের প্রতি আহ্বান জানান যেন করোনা মোকাবেলায় সকলে সাধ্যমতো সহায়তার হাত প্রসারিত করেন।

সংগঠনটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব চাকমা স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে করোনা মোকাবেলায় সর্বোচ্চ প্রচেষ্ঠার অংশ হিসেবে সকল কার্যক্রমে শক্তিশালী মনিটরিংসেল গঠণ সহ কার্যকর ব্যবস্থা জোরদার করার জন্য সরকার ও প্রশাসনের প্রতি অনুরোধও জানান তিনি।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *