কাবুলে স্কুলে বোমা বিস্ফোরণে নিহত অন্তত ৪০

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের একটি স্কুলে একাধিক বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত এবং কয়েক ডজন আহত হয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে রয়টার্সকে বলেন, হতাহতের বেশিরভাগই সায়েদ উল শুহাদা স্কুলের শিক্ষার্থী।

টিভি চ্যানেল টোলোনিউজের ফুটেজে দেখা গেছে, স্কুলের বাইরের রাস্তায় রক্তমাখা রাস্তায় বই এবং ব্যাগ ছড়িয়ে আছে এবং স্থানীয় বাসিন্দারা ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করতে ছুটে আসছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আরেক মুখপাত্র তারিক এরিয়ান রয়টার্সকে জানিয়েছেন, মৃতের সংখ্যা কমপক্ষে ৩০ জন এবং আহতের সংখ্যা ৫২ জন। তবে, এই হামলার কারণ বা লক্ষ্য কী ছিল তা তিনি জানাতে পারেননি।

গত মাসে ওয়াশিংটন আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা ঘোষণার পর থেকে কাবুলে সতর্কতা বাড়ানো হয়েছে।

আফগান কর্মকর্তারা বলছেন, ওই ঘোষণার পর তালেবানরা দেশজুড়ে হামলা বাড়িয়েছে।

কোনো গোষ্ঠী শনিবারের হামলার দায় স্বীকার করেনি। তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন এবং এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিবা এরিয়ান রয়টার্সকে বলেন, এটি ছাত্র এবং ছাত্রীদের যৌথ উচ্চ বিদ্যালয়। এখানে তিন শিফটে পড়ানো হয় এবং দ্বিতীয় শিফটটি ছাত্রীদের।

তিনি জানান, আহতদের বেশিরভাগই ছাত্রী।

আজকের হামলার জন্য প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি তালেবানদের দোষারোপ করেছেন।

তিনি বলেছেন, ‘তালেবানরা তাদের অবৈধ যুদ্ধ ও সহিংসতা বাড়িয়ে দেখিয়ে দিয়েছে তারা শান্তিপূর্ণ ও মৌলিকভাবে সংকট সমাধানে ইচ্ছুক নয়। তারা বরং পরিস্থিতি জটিল করে তুলছে।’

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *