রাজশাহীতে জনউদ‍্যোগ যুবগ্রুপের ২দিনব‍্যাপী আইসিটি প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

সূভাষ চন্দ্র হেমব্রম, রাজশাহীঃ রাজশাহীর মেট্রোপলিটন কলেজে ১২-১৩ মার্চ হয়ে গেল যুবগ্রুপের ২০ জন সদস‍্য অংশগ্রহণে প্রশিক্ষণে।

প্রথমদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজশাহীর পবা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান জনাব ওয়াজেস আলী খান, রাজশাহী জনউদ‍্যোগের আহ্বায়ক প্রশান্ত কুমার সাহা, সদস‍্য সচিব জুলফিকার আহমেদ গোলাপ, সদস‍্য রাজকুমার সরকার, শাহজাহান আলী বরজাহান, নারীনেত্রী সেলিনা বানু, মেট্রোপলিটন কলেজের অধ‍্যক্ষ সাইফুর রহমান, আইপি ফেলো আন্দ্রিয়াস বিশ্বাস, প্রশিক্ষক মোমতাজুর রহমান রনি, জনউদ‍্যোগ জাতীয় কমিটির সদস‍্য সচিব তারিক হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বক্তাগণ যুবসমাজের আইসিটির উপর দক্ষতা অর্জনের মাধ‍্যমে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সুবিধাসমূহ পাওয়া, সামাজিকিকরণসহ সমাজের জন‍্য কাজ করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

তারা বলেন, এক সময় মানুষ পায়ে হেঁটে যোগাযোগ করতো। ধীরে ধীরে মানুষ তার প্রয়োজনে যানবাহন আবিষ্কার ও ব‍্যবহার শিখেছে। ক্রমান্বয়ে মানুষ জলযান, আকাশযান, সাবমেরিন, রকেট আবিষ্কার করেছে।

অনেক আগে দূত পাঠিয়ে, কবুতর দিয়ে, রানার/ডাকহরকরার মাধ‍্যমে খবর পাঠাতো। এরপর টেলিগ্রাম ডাকবিভাগে বিপ্লব সাধন করেছিল।

টেলিফোন, রেডিও, টেলিভিশন হয়ে মানুষ রোবোট আর কম্পিউটার যুগে প্রবেশ করে। মানুষ চাঁদে পা রাখে, মহাশূণ‍্যের রহস্য ভেদ করতে মন দেয়, মঙ্গলে যাবার প্রস্তুতি গ্রহণ করে।

তারপর আর মানুষকে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। দিনদিন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি যেন আকাশছোঁয়া বেগে এগিয়ে চলছে। গোটা জগত এখন মানুষের হাতের মুঠোয় চলে এসেছে।

বাংলাদেশও বিশ্বের এই অগ্রযাত্রায় সমান তালে এগিয়েছে। এখন ডিজিটাল এই যুগে সরকারি-বেসরকারি সুবিধাসমূহ অনলাইনে সহজেই জানা সম্ভব।

২ দিনের প্রশিক্ষণে কীভাবে এসকল সুবিধাসমূহ জানা যায়, কারা কোন সুবিধা পেতে পারে, কীভাবে বিভিন্ন অ‍্যাপস ডাউনলোড করতে হয়, আইডি খুলতে ও তা নিরাপদ রাখতে হয়, গ্রুপ করা, অ‍্যাডমিন, সদস‍্য, ব্রাউজার, সার্চ ইঞ্জিন কী, কীভাবে বিকাশ-নগদ-রকেটসহ বিভিন্ন একাউন্ট খোলা যায় ও তা কাজে লাগানো যায়, জন্মনিবন্ধন, এনআইডি, পাসপোর্টসহ বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণ করার ব‍্যবস্থা কী সে সম্পর্কে আলোচনা করা হয়।

এসময় ব‍্যক্তি, পরিবার, সমজ ও রাষ্ট্রের প্রতি যুবনাগরিকদের কর্তব্য নিয়ে আলোচনা হয়।

অংশগ্রহণকারী যুবদের শতস্ফুর্ততা কর্মশালাকে প্রাণবন্ত করেতোলে। প্রশিক্ষণের ফাকে তারা গান, একক অভিনয়, মেমোরি গেমসহ বিভিন্ন আনন্দদায়ক ও সৃজনশীল উপস্থাপনার মাধ‍্যমে ক্লান্তি দূর করে।

তারা নিজেদের মধ‍্যে কাজ ভাগ করে নেন ও নিয়মিত যোগাযোগের জন‍্য অনলাইন গ্রুপে সকলে যুক্ত হন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে অন‍্যান‍্যদের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন খেলাঘর রাজশাহী জেলার সাধারণ সম্পাদক আফতাব হোসেন কাজল, উদীচী জেলা শাখার কোষাধ‍্যক্ষ সন্তোষ কুমার ও নাটোরের আইপি ফেলো মুন্ডা কালিদাস।

সবশেষ জনউদ‍্যোগ যুবগ্রুপকে শপথবাক‍্য পাঠ করান জুলফিকার আহমেদ গোলাপ।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *