জিমি কার্টার, ক্লিনটন, বুশ ও ওবামার নিন্দা

যুক্তরাষ্ট্রের চার সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার, বিল ক্লিনটন, জর্জ বুশ ও বারাক ওবামা দেশটির ক্যাপিটল বিল্ডিংয়ে ট্রাম্প সমর্থকদের সহিংস হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন’র প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদন বলা হয়েছে, চার সাবেক প্রেসিডেন্ট কঠোর ভাষায় এ হামলার নিন্দা করেছেন এবং শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের ওপর জোর দিয়েছেন।

সাবেক ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার ও সাবেক ফার্স্টলেডি রোজালিন কার্টার এ হামলায় ‘বিব্রত’ হয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন।

ক্যাপিটল বিল্ডিংয়ে ট্রাম্প সমর্থকদের সহিংস হামলাকে জিমি কার্টার ‘জাতির জীবনে ট্র্যাজেডি’ হিসেবে অভিহীত করে বলেছেন, ‘সারা বিশ্বে অস্থির গণতন্ত্রের দেশগুলোতে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করে দেখেছি, আমরাই কেবল ঐক্যবদ্ধ থাকতে পারি, আমাদের দেশের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।… আমাদের দেশে গত ২০০ বছর ধরে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হচ্ছে।’

এই হামলাকে দেশ ও দেশের সংবিধানের ওপর অপ্রত্যাশিত হামলা হিসেবে উল্লেখ করেছেন সাবেক ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন বলেছেন, ‘এই হামলা হচ্ছে গত চার বছর ধরে দেশের বিষাক্ত রাজনীতিতে ক্রমাগতভাবে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার কুফল।’

তিনি এ হামলাকে আমেরিকার শাসন ব্যবস্থার প্রতি অবিশ্বাস সৃষ্টি করা ও একজনের বিরুদ্ধে আরেকজনকে লেলিয়ে দেওয়ার কুফল বলেও মন্তব্য করেছেন।

বলেছেন, ‘নির্বাচন অবাধ ছিল। ভোট গণনাও হয়েছে সুষ্ঠুভাবে এবং এর ফল চুড়ান্ত করা হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী আমাদেরকে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।’

সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ বলেছেন, ‘যারা ক্যাপিটলে সহিংস হামলা চালিয়েছেন ও কংগ্রেসের বৈঠকে বাধা দিয়েছেন তারা মিথ্যা বাণী ও মিথ্যা আশা নিয়ে এ অপকর্ম করেছেন।’

আমেরিকার গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান, ঐহিত্য ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর এ হামলায় তিনি ‘হতবাক’ হয়েছেন বলেও মন্তব্য করেছেন।

সাবেক ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেছেন, ‘ক্যাপিটলে হামলার ঘটনা ইতিহাস মনে রাখবে। সেই হামলায় মমদ দিয়েছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট, যিনি নির্বাচনের ফল নিয়ে ক্রমাগত মিথ্যাচার করে আসছেন।’

সেই হামলাকে দেশের জন্যে অসম্মানজনক হিসেবে আখ্যা দিয়ে তিনি আরও বলেছেন, ‘আমরা যদি মনে করি এই হামলা হঠাৎ করেই হয়েছে তাহলে মনে হবে আমরা নিজেরাই নিজেদের সঙ্গে তামাশা করছি।’

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *