সমতলের আদিবাসীদের জন্য স্বতন্ত্র ভূমি কমিশন জরুরি: ফজলে হোসেন বাদশা

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাসের আহ্বায়ক ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের অভাবে সমতলের আদিবাসী জনগোষ্ঠী তাদের শত বছরের ভোগকৃত জমির উপরও নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারে না। তাই সমতলের আদিবাসী জনগোষ্ঠীর জন্য স্বতন্ত্র ভূমি কমিশন প্রতিষ্ঠা জরুরি। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের দায়িত্ব রাষ্ট্রকেই নিতে হবে। করোনাকালীন সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীতে প্রণোদনা দেওয়া হলে প্রান্তিক মানুষের দারিদ্র্যের হার অনেক কমে আসতো। বৈষম্যহীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় সংবিধানের সব অধিকার সবাইকে জানাতে হবে, তবেই সুষম অধিকার প্রতিষ্ঠা সম্ভব। ১৭ নভেম্বর মঙ্গলবার সকালে ১১টায় রাজশাহীতে ‘প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানবাধিকার: পরিস্থিতি উন্নয়নে আমাদের ভূমিকা ও দায়বদ্ধতা’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।

উন্নয়ন সংস্থা ডাসকো ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আকরামুল হকের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন উন্নয়ন কর্মী হান্নান বিশ্বাস। সেমিনারের শুরুতেই প্রবন্ধ উপস্থাপনায় তিনি বলেন, দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ছয় জেলায় যে সমীক্ষা চালানো হয়। সেখানে দেখা যায় নারী ও আদিবাসীসহ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর প্রতি সহিংসতা এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে। আর আইনি দাবি এবং প্রশাসনের সেবা গ্রহণেও সীমাবদ্ধতা রয়েছে।

রাজশাহী নগরীর একটি রেস্তোরাঁর সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের মানবাধিকার কর্মী, জনপ্রতিনিধি, উন্নয়ন কর্মী ও সুশীল সমজের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

সেমিনারে বক্তব্য দেন নেটজ বাংলাদেশের পরিচালক শহিদুল হক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য ও পরিবেশ ও প্রাণী বিভাগের অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান সজল, দৈনিক সোনার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হাসান মিল্লাত, রাজশাহী সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক হাসিনা মমতাজ প্রমুখ। আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় রাজনৈতিক সদিচ্ছা এবং জনপ্রতিনিধিদের স্বচ্ছ ভূমিকার প্রতি জোর দেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *