ম্রো’দের ভূমি দখল করে হোটেল নির্মানের প্রতিবাদ জানিয়েছে ছাত্র ফ্রন্ট

বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড়ে ম্রো আদিবাসীদের ভূমি দখল করে সিকদার গ্রুপের হোটেল ও পর্যটন স্থাপনা নির্মাণের পরিকল্পনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। আজ বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর ) সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল কাদেরী জয়ের সভাপতিত্বে ও প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শোভন রহমানের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স, সাংগঠনিক সম্পাদক রুখসানা আফরোজ আশা, ঢাকা নগর শাখার সভাপতি মুক্তা বাড়ৈ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক রাজীব কান্তি রায়।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল প্রেসক্লাব থেকে পল্টন মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

উক্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, পাহাড়ে পর্যটন কেন্দ্র, মসজিদ, হোটেল বানানোর নাম করে আদিবাসীদের ভূমি দখল, উচ্ছেদ এবং তাদের ওপর জোর জবরদস্তি চালানোর ঘটনা এটিই প্রথম নয়। বহু বছর ধরেই এরকম চক্রান্ত করে তাদেরকে তাদের বসত বাড়ি, ভূমি থেকে উচ্ছেদ করা হচ্ছে। চালানো হচ্ছে জাতিগত নিপীড়ন।

বক্তারা আরো বলেন, একই সাথে পাহাড়ে চলছে অলিখিতভাবে একটি বিশেষ বাহিনীর শাসন। সম্প্রতি আমরা দেখতে পাচ্ছি সিকদার গ্রুপ এবং নিরাপত্তা বাহিনীর কল্যাণ ট্রাস্ট এর যৌথ উদ্যোগে ফাইভ স্টার হোটেল বানানোর নাম করে সেখানে প্রায় এক হাজার হেক্টর জুমের জমি দখলের চেষ্টা করছে। এই হোটেল নির্মাণ হলে প্রত্যক্ষভাবে ম্রোদের চারটি পাড়া এবং পরোক্ষভাবে ৭০-১১৬টি পাড়া ক্ষতিগ্রস্ত হবে,প্রায় ১০ হাজার জুমচাষি উদ্বাস্তু হওয়ার ঝুঁকিতে পড়বেন। এক দিকে নিরাপত্তা বাহিনী তাদের ওপর যেমন আগ্রাসন চালাচ্ছে, অপর দিকে তাদের জীবন-জীবিকা, প্রাণ-প্রকৃতি ধ্বংস করে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গড়ার পাঁয়তারাও চলছে। পাহাড় ও সমতলে শাসক গোষ্ঠির এই সম্পদ দখল ও অধিকার বঞ্ছিত করার চক্রান্তের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য জনসাধারণকে আহ্বান জানান সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *