বিপ্লবী মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমার মৃত্যুবার্ষিকীতে চট্টগ্রাম জেলা ওয়াকার্স পার্টির শ্রদ্ধাঞ্জলি

এম এন লারমা বাংলাদেশের সংবিধানে আদিবাসীদের স্বাতন্ত্র ও আত্ন নিয়ন্ত্রনের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেছে চট্টগ্রাম জেলা ওয়াকার্স পার্টি।

বিপ্লবী মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমার ৩৭ তম মৃ্ত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি চট্টগ্রাম জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, সাবেক পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের নেতা এম এন লারমা পাকিস্তানী স্বৈরশাসন থেকে বাংলাদেশের জাতীয় মুক্তি ও স্বাধীনতার লড়াইয়ে প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহণ করে বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

স্বাধীন বাংলাদেশে তিনি প্রথম সকল আদিবাসীদের স্বাতন্ত্র্য রক্ষা করার দাবী জানিয়েছিলেন।

উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয় যে, এম এন লারমার সংগ্রাম ছিল নিপীড়িত জাতিসত্তার মুক্তির গণতান্ত্রিক সংগ্রাম। তিনি চেয়েছিলেন বাংলাদেশের সংবিধানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আদিবাসী জাতিসত্তার স্বাতন্ত্র্য ও অধিকার। এম এন লারমা মানবাধিকারের প্রশ্নে সোচ্চার হয়েছিলেন। বাংলাদেশের রাষ্ট্র ব্যবস্থায় এ দাবী প্রাথমিকভাবে সাংঘর্ষিক বিবেচিত হলেও প্রথম আওয়ামী লীগ সরকার শান্তি চুক্তির মাধ্যমে প্রকারন্তরে তাদের দাবীসমূহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেয় এবং রাজনৈতিক সমাধানের কাঠামো তৈরী হয় বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

উক্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নেতৃবৃন্দ আশা ব্যক্ত করে বলেন, শান্তি চুক্তির মূল যে লক্ষ তা বাস্তবায়নের মাধ্যমে লারমার আদর্শ বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক সংগ্রামে এম এন লারমা স্মরনীয় হয়ে থাকবেন বলেও ওয়াকার্স পার্টির নেতৃবৃন্দ আশা প্রকাশ করেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *