রুখিয়া রাউৎ এর ধর্ষণ ও হত্যাকারীর সবোর্চ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছে বিভিন্ন আদিবাসী ছাত্র সংগঠন

গত ৬ ই অক্টোবর রোজ মঙ্গলবার রংপুর কারমাইকেল কলেজের মেধাবি ছাত্রী রুখিয়া রাউৎ এর ধর্ষণ ও নির্মমভাবে হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীর সবোর্চ্চ শাস্তি নিশ্চিতকরনের লক্ষে দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে বাংলাদেশের বিভিন্ন আদিবাসী ছাত্র সংগঠন। দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এই মানববন্ধনে আদিবাসী ছাত্র নেতারা হত্যাকারীর সবোর্চ্চ শাস্তির জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানান।

উক্ত মানববন্ধনে রুখিয়া রাউৎ এর বাবা মেয়ে হত্যার বিচার চান, তিনি বলেন তার মেয়েকে নিয়ে আমাদের পরিবারে অনেক স্বপ্ন ছিল কিন্তু বিভিন্ন প্রলোভনের মাধ্যমে ধর্ষক আনিসুল ও তার দলবল মিলে আমার মেয়েকে নির্মমভাবে হত্যা করে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন জানাই, আমার মেয়ের ধর্ষন ও হত্যার বিচার করে দিবেন।

এছাড়াও দিনাজপুর মহিলালীগ এর নারী নেত্রী লাবনী দাস বলেন, আদিবাসী মুশহর সম্প্রদায়ের মধ্যে তার মেয়ে ছিল একজন মেধাবী ছাত্রী। কিন্তু তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে এবং আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং হত্যাকারীর সবোর্চ্চ শাস্তি দাবি করি।

তাছাড়াও উপস্থিত আদিবাসী সকল ছাত্র সংঠনের নেতৃবৃন্দ বর্তমানে ঘটে যাওয়া সকল ধর্ষণ ও হত্যার তীব্র প্রতিবাদ জানায় এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে আদিবাসীদের উপর শোষন, নির্যাতন, ধর্ষণ ও হত্যার সবোর্চ্চ শাস্তি দাবি করেন। এই মানববন্ধনে রুখিয়া রাউৎ এর ধর্ষণ ও হত্যার সবোর্চ্চ শাস্তির দাবির স্বপক্ষে একাত্বতা ঘোষনা ও উপস্থিত ছিল বাংলাদেশ ওরাঁও ছাত্র সংগঠন (বসা), সান্তাল স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (সাসু), দিনাজপুর শাখা, আদিবাসী জাতীয় নারী পরিষদ, নর্দান আদিবাসী ছাত্র ঐক্য জোট, আদিবাসি ছাত্র সংগঠন, হাবিপ্রবি, এক সঙ্গে আমরা, দিনাজপুর, বাংলাদেশ খ্রিষ্টান যুব এসোসিয়েশন সহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *