রিদমিক কিবোর্ডের আপডেট ভাসর্নে সংযুক্ত হলো চাকমা অক্ষরে লেখার অপশন

বহুল ব্যবহৃত রিদমিক কিবোর্ডের আপডেট ভার্সনে এবার সংযুক্ত হলো চাকমা অক্ষরে লেখার অপশন। চাকমা অক্ষর আধুনিকায়ন সহ এর সাথে সম্পৃক্ত নানা কাজের সাথে জড়িত জ্যোতি চাকমা তাঁর নিজস্ব ফেসবুকে ওয়ালে আজ (১০ অক্টোবর) এর সত্যত্য নিশ্চিত করেন এবং বিষ্ময় প্রকাশ করে বলেন, আরেকটি সাফল্য অর্জিত হলো।
তিনি তাঁর অসুস্থতার কথা জানিয়ে আরো লিখেন, ” অপারেশনের পরে এখনো হাসপাতালে আছি। এর মধ্যে একটি সুখবর পেলাম।”

উক্ত পোষ্টে তিনি আরো জানান, গত বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি বিভুতি দা (বিভুতি চাকমা) সহ রিদমিক ডেভেলপার টিম এ মেইল করেছিলাম রিদমিক এ চাকমা কী-বোর্ড লেআউট ইন্টিগ্রেড করার জন্য।
এরপর কর্তৃপক্ষের সাড়া পেয়ে বিভুতি দা কয়েকটি মেইলে চাকমা লেআউট সহ বিস্তারিত পাঠালেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

উক্ত পোষ্টে আনন্দ প্রকাশ করে তিনি আরো বলেন, হঠাৎ আজ (১০ অক্টোবর) দেখি রিদ্মিক আপডেট ভার্ষণে চাকমা লেআউট ইন্ট্রিগ্রেড হয়েছে।
এজন্য তিনি জনৈক শামিম ভাই, রিদমিক ডেভেলপার টিম এবং বিভুতি চাকমাকেও ধন্যবাদ জানান ।
তবে কেবলমাত্র এন্ড্রয়েট- ৯ ভার্সন এবং এর চেয়ে ভালো ভার্ষণ ব্যবহারকারীরায় তাদের এন্ড্রয়েট সেটে এই সাপোর্ট পাবেন।

রিদমিক কিবোর্ড এপ এ এই সুবিধাটি পেতে নিম্নোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে –
প্রথমত, রিদমিক এপ এ সেটিংস টাচ করতে হবে। তারপর More Languages অপশন এ টাচ করে Chakma Layout ইনস্টল করতে হবে।এরপর চাকমা লেআউট এনাবল করে এই সুবিধা নেয়া যাবে।

এ নিয়ে চাকমা অক্ষর এর আধুনিকায়ন নিয়ে কাজ করা টিম সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়ে নিজ নিজ ওয়ালে পোষ্ট দিচ্ছেন চাকমা আদিবাসী সহ অন্যান্য আদিবাসীরাও। এ ধরণের একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপে সফল হয়ে চাকমা ভাষা হারিয়ে যাওয়ার শংকা থেকে অনেকাংশে মুক্ত হল বলেও মত দিচ্ছেন অনেকেই।
এছাড়া এই সুবিধার ফলে চাকমা ভাষায় স্বকীয় হরফে মনের ভাব প্রকাশ সহ এর নানাবিধ ব্যবহার বেড়ে যাবে তা চাকমা ভাষার জন্য একটি যুগান্তকারী অর্জন যা ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে বলেও আনন্দ প্রকাশ করছেন পাহাড় তথা বিভিন্ন প্রান্তের চাকমা আদিবাসীরা।
এভাবে সকল আদিবাসীরাও নিজ নিজ হরফে মনের ভাব প্রকাশ তথা সাহিত্য রচনার সুযোগ আগামীদিনে পাবে বলে আশাবাদও জানান অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *