ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে রাজশাহীতে মানববন্ধন

রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা গির্জায় আদিবাসী কিশোরীকে ৩ দিন আটকে রেখে ধর্ষণকারী ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীর সর্বোচ্চ শাস্তি এবং জড়িতদের বিচারের দাবিতে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ গতকাল ১ অক্টোবর ২০২০ তারিখ সকাল ১১.০০টায় রাজশাহী প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূূচি পালন করে। বিকাল ৩.৩০টায় রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

মানববন্ধনে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নকুল পাহানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডা, রাজশাহী কলেজ কমিটির সভাপতি সাবিত্রী হেমব্রম, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার মাহাতো, দিলিপ পাহান প্রমুখ।

বক্তব্য রাখেন জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক গনেশ মার্ডি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিমল রাজোয়াড়, দপ্তর সম্পাদক সূভাষ চন্দ্র হেমব্রম, কেন্দ্রীয় সদস্য বিভূতী ভূষণ মাহাতো, রাজশাহী জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুসেন কুমার শ্যামদুয়ার, গোদাগাড়ী উপজেলা কমিটির সভাপতি রবীন্দ্রনাথ হেমব্রম, আদিবাসী যুব পরিষদ রাজশাহী জেলা সভাপতি উপেন রবিদাস।

সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, রাজশাহীর বিশিষ্ট সাংবাদিক ও মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আমিরুল ইসলাম কনক, ৭১ এর ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহী জেলা সভাপতি শাহাজাহান আলী বরজাহান, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির আহবায়ক রিদম শাহরিয়ার, ছাত্র নেতা তামিম সিরাজী।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ২৬ অক্টোবর থেকে ২৮ তারিখ পর্যন্ত ৩ দিন আটকে রেখে মুন্ডুমালা গির্জায় আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণকারী ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীর সর্বোচ্চ শান্তির দাবি জানাই। একই সাথে মুন্ডুমালা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কমেল মার্ডিকে উপযুক্ত শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান। কারন কামেল মার্ডির প্রত্যাক্ষ সহযোগীয় ধর্ষনকারী ফাদার প্রদীপ গ্রেগরী ঘটনাস্থল থেকে পালাতে সক্ষম হয়। তিনি হাস্যকর সালিশ করে বিষয়টা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। বক্তারা ভুক্তভোগী আদিবাসী কিশোরীর এবং তার পরিবারের নিরাপত্তারও দাবি জানান।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *