বাসন্তী রেমার কলাবাগান কেটে ফেলার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, বনবিভাগ কর্তৃক পেগামারী গ্রামের বাসন্তী রেমার ৪০ শতাংম জমির কলাবাগন কেটে ফেলার প্রতিবাদে এবং ক্ষতিপূরণের দাবিতে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০) সকাল ১১টার সময় জলছত্রের ২৫ মাইল বাজারের মেইন সড়কে এই মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রেখেছেন বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন(বাগাছাস, কেন্দ্রীয় সংসদ)এর সহ-সভাপতি শ্যামল মানখিন, জিএসএফ মধুপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সত্যজিৎ নকরেক, জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি, ইউজিন নকরেক প্রমুখ।

সত্যজিৎ নকরেক বলেছেন, সরকারের কাছে দাবি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হোক। মধুপুরেরর জন্য বনবিভাগ একটি অভিশাপ। কারণ শাল গজারি গাছ কেটে একাশি গাছ লাগানো হয়। বন ধ্বংসেরর মূল কারণ বনবিভাগ। বনবিভাগ বন ধ্বংসেরর বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। যা সত্যিই আতঙ্কের। বনবিভাগের বন রক্ষার যদি সত্যই সদিচ্ছা থাকে তাহলে হাজার হাজার একর বনবিভাগের জমি উদ্ধার করুক।

বিশিষ্ট সমাজ সেবক এডুয়ার্ড সাংমা বলেন, আমরা ঘুমিয়ে গেছি তা ভাবলে ভুল করবেন। আপনারা যে গাছ থাকতেই গাছ লাগান আমরা কি জানি না! আমি কোনদিন গাছ কাটিনি কাঠ চুরি করিনি কিন্তু আমাকে মিথ্যো মামলা দেওয়া হয়েছে। এখানে উপস্থিত সবাইকে মনে রাখতে হবে। এইটা শুধু আদিবাসীর সমস্যা না এইটা সবার সম্মেলিত সমস্যা।

মানব বন্ধন সঞ্চালনা করেন জিএসএফ এর সাধারণ সম্পাদক লিয়াং রিছিল।

তথ্যসূত্র: থকবিরিম

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *