এম এন লারমার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাঙ্গামাটিতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

জুম্ম জাতীয়তাবাদের প্রবক্তা বিপ্লবী নেতা মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা’র ৮১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতি, হিল উইমেন্স ফেডারেশন এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ যৌথ উদ্যোগে রাঙামাটিতে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এ আলোচনা সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির রাঙামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অরুন ত্রিপুরার সভাপতিত্বে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সহসাধারণ সম্পাদক রিন্টু চাকমা, যুব সমিতির সুমন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শান্তি দেবী তনচংগ্যা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

১৫ সেপ্টেম্বর সকাল ১০ ঘটিকায় পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, রাঙামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জগদীশ চাকমার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তা সুমন চাকমা বলেন, সরকারের দমন-পীড়ন এবং শোষণের যাঁতাকলে জুম্ম জনজীবন আজ অস্তিত্বের হুমকীর মুখে রয়েছে। জুম্ম জনগণ এখান থেকে মুক্তি পেতে চায়। পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নে সরকারের সদিচ্ছার অভাব বলে তিনি অভিযোগ করেন।

শান্তি দেবী তনচংগ্যা বলেন, মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা’র ৮১তম জন্মবার্ষিকীতে আমাদের তাঁর চেতনাকে আমাদের সকলের ধারণ করা উচিত। তাঁর জীবনাদর্শ আমাদের লালন করা উচিত আমাদের প্রত্যকের। জাতির ক্রান্তিলগ্নে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক রিন্টু চাকমা বলেন, মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা ছিলেন একজন প্রতিবাদের বলিষ্ঠ কন্ঠস্বর। ছোটবেলা থেকে তিনি অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। ছাত্র জীবন থেকে শুরু করে কর্ম জীবনেও তিনি

সমাজের জন্য অকুতোভয় লড়াকু সৈনিক ছিলেন। রিন্টু চাকমা আরও বলেন, বর্তমান ছাত্র সমাজকে এম এন লারমা থেকে শিক্ষা নিতে হবে। এম এন লারমা কর্ম জীবনেও জাতির জন্য কাজ করতে মনোযোগী ছিলেন।

অনুষ্ঠানে সভার সভাপতি অরুন ত্রিপুরা সমাপনী বক্তব্যে বলেন, আজকের এই কঠিন সময়ে আমাদের সময় হয়েছে কঠোর সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ার। আমাদের তরুণ বয়সে পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতি উপলব্ধি করে জাতির তরে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *