মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি জিয়াউদ্দিন তারেক আলী মারা গেছেন

মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি ও সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সভাপতি জিয়াউদ্দিন তারেক আলী ও এক্সপ্রেশনস লিমিটেডের উদ্যোক্তা পরিচালক জিয়াউদ্দিন তারেক আলী আর নেই। করোানায় আক্রান্ত হয়ে আজ সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

তবে করোনা বাস্তবতার কারণে বড় পরিসরে তার শেষ শ্রদ্ধাঞ্জলির আয়োজন করা সম্ভব নয় বলে তাঁর সুহৃদরা জানিয়েছেন। তবে সোমবার বিকেল ৪টায় আগারগাঁওয়ের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর প্রাঙ্গণে সীমিত আকারে তাকে শ্রদ্ধা জানানো হবে। এদিকে, জিয়াউদ্দিন তারেক আলীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে এক বার্তা দিয়েছেন এক্সপ্রেশনস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রামেন্দু মজুমদার। বার্তায় গভীর শোক ও তার পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়। বার্তায় আরও জানানো হয়, করোনা পজিটিভ হয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। আজ সকালে তার কার্ডিয়াক অ্যাটাক হয়।

উল্লেখ্য, জিয়াউদ্দিন তারেক আলীর জন্ম ১৯৪৫ সালে। লাহোর থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করেন তিনি। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন তিনি। অংশ নেন বাংলাদেশ সহায়ক সমিতির উদ্যোগে গড়ে ওঠা মুক্তিসংগ্রামী শিল্পী সংস্থার উদ্দীপনামূলক সংগীত ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে। ওই সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড নিয়ে তৈরি তথ্যভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘মুক্তির গান’-এর সঞ্চালকও তিনি। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের নতুন দৃষ্টিনন্দন ভবনের সমন্বয়কও ছিলেন তিনি।

এছাড়া বাংলাদেশের আদিবাসী ও সংখ্যালঘু অধিকার নিয়ে সোচ্ছার ছিলেন তিনি। জাতিগত ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জনপদ আক্রান্ত হলে বারংবার ছুটে গেছেন তাকে আলী। আদিবাসী ও সংখ্যালগু মানুষের নিরাপত্তা হয়ে কন্ঠকে সোচ্ছার রেখেছেন যার জন্য আদিবাসী ও সংখ্যালঘু মানুষও তাঁর প্রয়ানে শোক প্রকাশ করছেন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *