সীতাকুন্ডে ইস্পাত কোম্পানি কর্তৃক ত্রিপুরা পাড়া উচ্ছেদ পরিকল্পনার প্রতিবাদ জানিয়েছে টিএসএফ

সতেজ চাকমা: চট্টগ্রামে সীতাকুন্ড উপজেলার ৭ নং ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত সুলতানা মন্দির ত্রিপুরা পাড়া উচ্ছেদ পরিকল্পনার প্রতিবাদ জানিয়েছে ত্রিপুরা ছাত্রদের সংগঠন ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরাম (টিএসএফ)। গত ১৯ এপ্রিল ২০২০ ইং রোজ রবিবার টিএসএফের সাধারন সম্পাদক নক্ষত্র ত্রিপুরা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই প্রতিবাদ জানানো হয়। গত ১৭ এপ্রিল ২০২০ ইং বাংলাদেশের বেসরকারী টেলিভিশন এসএ (SATV) টিভিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে উক্ত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় যে, জিপিএইচ ইস্পাত কোম্পানি লিমিটে কর্তৃক চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ডে উক্ত ত্রিপুরা পাড়াটি উচ্ছেদ পরিকল্পনা করা হয়েছে। উক্ত উচ্ছেদ প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানানো হয়। ইতোমধ্যে কোম্পানি কর্তৃক গ্রামবাসীর যাতায়াতের একমাত্র পথটিও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে এবং গোসলের জন্য ব্যবহৃত একমাত্র পুকুরটিও দখল করে নেওয়া হয়েছে বলে উক্ত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে সংগঠনটি । এমতাবস্থায় গ্রামবাসীরা প্রতিনিয়ত উচ্ছেদ আতংকে দিনাতি পাত করছে বলেও উল্লেখ করা হয় উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে।

উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয় যে, চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী,ফটিকছড়ি, সীতাকুন্ড ও মিরসরাই উপজেলায় ব্রিটিশ শাসনের আগে থেকে ত্রিপুরারা বসবাস করে আসছে। পরবর্তীতে বিভিন্ন কোম্পানি জায়গা লিজ নিয়ে সেখানে নানান শিল্প কারখানা স্থাপন করে এবং ধীরে ধীরে ত্রিপুরাদেরকে তাদের ভূমি থেকে উচ্ছেদের জন্য বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে।চলমান এই উচ্ছেদ পরিকল্পনাটিও তারই একটি অংশ বলে জানিয়েছে ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরাম। উক্ত উচ্ছেদ পরিকল্পনার বিরুদ্ধে ত্রিপুরা জাতি ও সমগ্র ত্রিপুরা ছাত্র সমাজের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটি।

এছাড়া উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে ছয় দফা সম্বলিত একটি দাবী নামা সরকারের নিকট পেশ করা হয়। দাবী সমূহের মধ্যে অন্যতম হলো- সুলতানা মন্দির ত্রিপুরা পাড়ায় বসবাসরত ত্রিপুরা জনগোষ্ঠীকে জিপিএইচ ইস্পাত কোম্পানি লিমিটে কর্তৃক উচ্ছেদ প্রক্রিয়া দ্রুত বন্ধ করা। এছাড়া স্থানীয় ত্রিপুরাদের নামে ভূমি বন্দোবস্তী প্রদান, নিরাপত্তা বিধান, রাস্তাঘাট ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা সহ তাদের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করে ত্রিপুরাদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য বিশেষ প্রকলপ গ্রহনেরও দাবী জানায় ত্রিপুরা ছাত্রদের এই সংগঠন।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *