করোনায় থেমে নেই বান্দরবানে ভূমি দস্যুদের তান্ডব

বিশেষ প্রতিবেদক: করোনায় জবুথবু হয়ে সবাই যে যার বাড়ীতে অবস্থান করছে।আয়ের পথ রুদ্ধ হওয়াই পাহাড়ের জুম চাষী নি¤œ মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর কপালে ভাজ পড়তে শুরু করেছে আস্তে আস্তে। নির্ধারিত বাজার বন্ধ থাকায় জুমে উৎপাদিত ফসল বাজারজাত করতে পারছেন না এসব জুমচাষী। ফলে আয়ের সমস্ত পথ রুদ্ধ।এমন সময়েও বান্দরবানে ভূমি দস্যুদের তান্ডব থেমে নেই। গত ১৮ এপ্রিল (শনিবার) বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা জিকে শামীম ও জমিস উদ্দীন মন্টুর মালিকানাধীন সিলভান ওয়াই রিসোর্টের লোকজন কর্তৃক পাহাড়ি মালিকানাধীন ৫ হাজারের অধিক রাবার গাছ পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এদিকে এই পুড়িয়ে দেয়ার বিরুদ্ধে উক্ত রাবার বাগানের মালিক বীরেন্দ্র ত্রিপুরা স্থানীয় থানায় মামলা করতে গেলে ওসি মামলা নেয়নি বলে জানান এলাকাবাসীরা। এলাকাবাসীর অভিযোগ, সিলভান ওয়াই রিসোর্টের মালিকদের তান্ডবে ইতোমধ্যে সাঙ্গাই মারমা পাড়া উচ্ছেদ হয়ে গেছে।এছাড়াও পার্শ্ববর্তী পাহাড়ী গ্রামবাসীদের ভূমি বেদখল করা হচ্ছে বাছ-বিচারহীনভাবেই।

অন্যদিকে স্থানীয় প্রশাসনের লোকজনকে এ বিষয়ে বারংবার অবগত করা হলেও কেবল তদন্তের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছে প্রশাসনের কার্যক্রম।প্রশাসনের নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে সিলভান ওয়াই রিসোর্ট কর্তৃপক্ষ বারংবার তাদের ভূমিদস্যু কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানা গেছে।

এদিকে ভুক্তভোগী এ গ্রামের মানুষ ইতোমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করলেও কোনো প্রকার সুরাহা পাচ্ছেন না।উল্টো চোখের সামনে এসব ভূমিদস্যুদের আগুনে পুড়ে যেতে দেখছে তাদের রাবার বাগান। এই ভূমি দস্যুদের তান্ডব থেকে রেহাই পেতে আবারও প্রশাসন এবং প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এই ভুক্তভোগী পরিবারগুলো।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *