খাগড়াছড়ি ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) ও সিভিল সার্জনের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদ

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে ভিডিও কনফারেন্সে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার বিভিন্ন ত্রিপুরা পল্লীতে দেখা দেওয়া হামরোগের প্রাদুর্ভাব বিষয়ে প্রদত্ত খাগড়াছড়ির ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) ও সিভিল সার্জনের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদ। গত ৭ এপ্রিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে খাগড়াছড়ি জেলার সঙ্গে সংযুক্ত হন। এক পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী জেলার হামের প্রকোপ বিষয়ে জানতে চান। ঐ সময় ডিসি বলেন যে, হামে যারা আক্রান্ত তারা পাহাড়ী জনগোষ্ঠীর; এদের মধ্যে কিছু কুসংস্কার আছে। সিভিল সার্জনও প্রায় একই সুরে বলেন যে, ত্রিপুরা এলাকার কুসংস্কারের কারণে তারা চিকিৎসা নিতে চায় না। মূলত উক্ত দুজনের বক্তব্যের জন্য প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অনন্ত কুমার ত্রিপুরা স্বাক্ষরিত উক্ত প্রতিবাদ পত্রে আরো বলা হয় যে, উক্ত প্রাদুর্ভাবের দায় স্থানীয় জনগোষ্ঠীর উপর চাপিয়ে দিয়ে নিজেদের ব্যর্থতাকে ঢেকে রাখার অপচেষ্টা করা হয়েছে। প্রশাসন বা কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব জ্ঞানহীনতাকে এরিয়ে যাওয়ার কৌশল নেওয়া হয়েছে।

উক্ত ভিডিও কনফারেন্সে হাম প্রাদুর্ভাবের বিষয়টি তুলে ধরার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে সংগঠনটি কিছু দাবিনামা তুলে ধরে। যেমন, ভুক্তভোগী পরিবারদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা, প্রত্যন্ত এলাকায় নিয়মিত টিকা ও পুষ্টিসেবা নিশ্চিত করা, ডিসি ও সিভিল সার্জনের বক্তব্য প্রত্যাহারপূর্বক তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা ইত্যাদি।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *