কক্সবাজারে আদিবাসী গ্রামে সাম্প্রদায়িক হামলা

গত ৫ এপ্রিল রাতে কক্সবাজারের মনখালী চাকমা পাড়ায় সামান্য কথা কাটাকাটির জের ধরে সাম্প্রদায়িক হামলা ঘটে। জানা যায়, ঐ গ্রামের কয়েকজন চাকমা যুবক পাশের শওকত আলীর দোকানে বাজার করতে যায়। একপর্যায়ে, দোকানদার ও যুবকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে দোকানদার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের কল করে বলে যে, চাকমারা মসজিদ ভাঙচুর করতেছে। বলা বাহুল্য, শওকত আলীর দোকানের পাশে একটি মসজিদ বানানো হচ্ছে। উক্ত কথায় বিশ্বাস করে উত্তেজিত মুসলিমরা দলে দলে চাকমা পাড়ায় আসতে থাকে। রাত দশটা পর্যন্ত তারা চাকমা ছেলেদের মারধর করতে থাকে এবং কয়েকটি বাড়ীতে হামলা চালায়। এতে কক্সবাজার সরকারি কলেজের ছাত্র নেপাল চাকমা মারাত্মক আহত হয় এবং ইমন তনচংগ্যার মোবাইল ফোনটি কেড়ে নিয়ে যায়।

বলা বাহুল্য, এরকম একটি সামান্য কথা কাটাকাটির বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান বা মেম্বারদের দিয়ে সমাধান করা যেত।

প্রাসঙ্গিকভাবে উল্লেখ্য যে, প্রায় কয়েক বছর আগে সাধারণ ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের উষ্কানি দিয়ে রামুতে ব্যাপক সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটানো হয়েছিল।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *