সাহেবগঞ্জে পুলিশী হামলায় আহতদের একজন নিহতঃ আরও ৪ জনের মৃত্যুর অভিযোগ

আইপিনিউজ ডেস্কঃ গাইবান্ধার সাহেবগঞ্জ বাগদা ফার্ম এলাকায় বাপ দাদার ভূমির অধিকারে আন্দোলনকারী সাঁওতাল এবং বাঙ্গালীদের সদ্য গড়ে উঠা বাসস্থানে গত ৬ই নভেম্বর কয়েক দফা সংঘর্ষে পুলিশসহ ২৪ জন আহত হয়। ৭ই নভেম্বর আহতদের মধ্যে শ্যামল হেমব্রম নামে একজনের রংপুর মেডিকেলে মৃত্যু হয়। ৩ জন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পুলিশ পাহারায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। স্থানীয়রা বলছে সাহেবগঞ্জ – বাগদাফার্ম এলাকায় আরো ৪ – ৫ টি লাশ পুলিশ ও র‍্যাবের পাহারায় রয়েছে, সে এলাকায় প্রশাসন কাউকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না।
৬ই নভেম্বর হামলায় আদিবাসীদের ৬০০ টি বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং গুলি চালানোর পরে ৭ই নভেম্বর সকাল থেকে আবারও অগিসংযোগ এবং লুটপাট হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এলাকার পুরুষ জনগণ সবাই এখন গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। নারীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে স্থানীয়রা জানান।
প্রসঙ্গত, সাহেবগঞ্জ বাগদা ফার্মের ১৮৪২ একর জমির অধিকারের জন্য সেখানকার সাঁওতাল এবং বাঙ্গালীরা দির্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে। আন্দোলনকারীদের দাবী, চুক্তি অনুযায়ী ইক্ষু চাষ বন্ধ হলে এই জমি মূল মালিকদের ফিরিয়ে দেওয়ার কথা। কিন্তু ইক্ষু চাষ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরেও তারা তাদের বাপ দাদার ভূমি ফেরত পাচ্ছেননা। গত জুনের ১ তারিখ ১৬১তম সাঁওতাল হুল দিবসে সাহেবগঞ্জে বিরাট কৃষক সমাবেশ করে বাগদা ফার্মে বসতি স্থাপন শুরু করে। এরপরে জুলাই মাসে পুলিশ সেখানে হামলা চালালে ৪ জন গুলিবিদ্ধ এবং অনেকে আহত হন। সেই ঘটনার তিন মাস পর গত ৬ই নভেম্বর আবারও হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *