একুশে পদকপ্রাপ্ত মংছেনচীং মংছিন আর নেই

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি মানিক ডাক্তার পাড়ার নিবাসী একুশে পদকপ্রাপ্ত (গবেষণা) সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী মহালছড়ির কৃতি সন্তান মংছেনচীং মংছিন রাখাইন বঙ্গবন্ধু মেডিকেল হাসপাতালে দীর্ঘদিন চিকিত্সার পর ৭ সেপ্টেম্বর শনিবার রাংগামাটির তবলছড়ির নিজ মেয়ের ভাড়া বাসায় সকাল ১১টায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি ফুসফুসের রোগসহ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত ছিলেন।

তিনি কক্সবাজার জেলায় রাখাইন পাড়ায় ১৯৬১ সালে জন্মগ্রহন করেন। মৃত্যুকালীন সময় তাঁর বয়স ৫৮ বছর।

তিনি ২০১৬ সালে সাহিত্য নিয়ে গবেষণা ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য একুশে পদক পান। পার্বত্যাঞ্চলের একমাত্র একুশে পদক প্রাপ্ত ব্যক্তি ছিলেন তিনি। এছাড়া ও তিনি বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য অসংখ্য পুরষ্কার পান।

মৃত্যুর সময় তিনি স্ত্রী ও দুই কন্যা সহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভাকাঙ্ক্ষি রেখে গেছেন। তাঁর স্ত্রী শোভারাণী ত্রিপুরাও একাধারে শিক্ষিকা ও সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০১৭ সালে বেগম রোকেয়া পুরষ্কারপ্রাপ্ত হন।

আগামীকাল মহালছড়িতে সামাজিক রীতিনীতি অনুযায়ী দাহকার্য সম্পন্ন করার কথা রয়েছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *