পাহাড়ে ঝুকিপুর্ণ স্থানে বসবাসকারীদের সরে যেতে জেলা প্রশাসনের মাইকিং

রাঙামাটিতে টানা বৃষ্টিপাতে পাহাড়ের পাদদেশে ঝুকিপূর্ন অবস্থায় বসবাসকারীদের আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য নিদের্শনা দিয়ে মাইকিং শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। রোববার রাঙামাটিতে জরুরীভাবে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থপানা কমিটির সভা ডাকা হয়েছে। সভায় সম্ভাব্য পাহাড় ধসের কারণে যাতে কোন প্রকার প্রাণহানী না ঘটে বা সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে না পড়ে তার জন্য প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসন সন্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত জেলা প্রশাসনের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা জরুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ। এসময় জেলা প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সকল সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ বলেন, রাঙামাটিতে পাহাড়ের উপর ঝুকিপূর্ন অবস্থায় বসবাসকারীদের জন্য ২১টি আশ্রয় খোলা হয়েছে এবং ঝুকি অবস্থায় বসবাসকারীদের আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়ার জন্য রাঙামাটি শহরে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়া দশ উপজেলায় বিশেষ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও প্রয়োজনে সরকারী অফিসগুলোকে আশ্রয় কেন্দ্র খোলা ও শুকনো খাবার রাখার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন তিনি।

উল্লেখ্য, রাঙামাটিতে টানা বৃষ্টিপাতের কারণে ২০১৭ সালের ১৩ জুন ভয়াবহ পাহাড় ধসে কারণে দুই সেনা কর্মকর্তা ও ৩ সেনা সদস্যসহ ১২০ জনের প্রানহানী ঘটে। এছাড়া বিদ্যুৎ ও সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্নসহ বিপুল পরিমানের ঘরবাড়ি ও মালামালের ক্ষয়ক্ষতি হয়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *