গতি কমিয়ে বাংলাদেশে আসবে ফণী

আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামছুদ্দীন আহমেদ বলেছেন, ‘ঘূর্ণিঝড় ফণী ভারতের চেয়ে প্রায় অর্ধেক গতিবেগ নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বাংলাদেশে ফণী আঘাত হানতে পারে। এর প্রভাবে দেশের বিভিন্ন জায়গায় শুক্র ও শনিবার থেমে থেমে বৃষ্টি হবে।’

শুক্রবার আবহাওয়া অধিদফতরে এক ব্রিফিংয়ে একথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘ওড়িশা রাজ্যে ২০০ কিলোমিটার গতিবেগে আঘাত হানার পর ফণী দুর্বল হয়ে বাংলাদেশে আসবে। তখন বাতাসের গতিবেগ থাকবে ৮০-১০০ কিলোমিটার।’

তিনি বলেন, ‘মোংলা, পায়রা বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত বহাল রাখা হচ্ছে। আপাতত এর বেশি বাড়ানো হবে না। চট্টগ্রামে ৬ আর কক্সবাজারে ৪ নম্বর সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ফণী ওড়িশা হয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দিকে যাবে। সেখান থেকে ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের দিকে আসবে। শুক্রবার বিকালের পর তা বাংলাদেশে প্রবেশ করার কথা। এরপর সারারাত ধরে সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, বরিশাল হয়ে ফরিদপুর, ঢাকার ওপর দিয়ে ভারতের মেঘালয়ের দিকে যেতে পারে।’

ফণী শুক্রবার সকালে ভারতে আঘাত হেনেছে। ওই সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ২০০ কিলোমিটার।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, দুপুরের দিকে ঝড়টি পশ্চিমবঙ্গের দিক সরতে শুরু করেছে।

ঝড়ের প্রভাবে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে সকাল থেকে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি শুরু হচ্ছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *