বাঘাইছড়ি ও বিলাইছড়ি সহিংস ঘটনায় জড়িত করার অপচেষ্টার বিরুদ্ধে জেএসএসের প্রতিবাদ

বাঘাইছড়ি ও বিলাইছড়িতে সংঘটিত সহিংস ঘটনায় জড়িত করার অপচেষ্টার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে জনসংহতি সমিতি। জেএসএস তথ্য ও প্রচার বিভাগ কর্তৃক প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই প্রতিবাদ জানানো হয়।

সংবাদ বিবৃতিতে বলা হয়, গত ১৮ মার্চ ৫ম উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার অব্যবহিত পরেই অজ্ঞাতনামা অস্ত্রধারী কর্তৃক বাঘাইছড়ি উপজেলার নয় মাইল এলাকায় ব্রাশ ফায়ার করে ৮ জন নিরীহ নির্বাচন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে হত্যা ও অনেককে আহত করার ঘটনায় এবং গত ১৯ মার্চ সকালের দিকে বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুরেশ তঞ্চঙ্গ্যাকে কে বা কারা গুলি করে হত্যা করার ঘটনায় একটি মহল কর্তৃক জাতীয় দৈনিক ও টিভি চ্যানেলসহ বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে মনগড়া, উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও প্রতিহিংসামূলকভাবে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে জড়িত করে অভিযোগ করার ঘটনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি গভীর উদ্বেগ ও তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়ার পূর্বেই এই ঘটনায় মনগড়া ও কাল্পনিকভাবে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করে বক্তব্য প্রদান কোনভাবে যুক্তি ও বাস্তবসম্মত হতে পারে না। এ ধরনের বক্তব্য প্রকৃত ঘটনাকে আড়াল করে সুষ্ঠু তদন্তকে যেমনি বাধাগ্রস্ত করবে, তেমনি পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নসহ পার্বত্য চট্টগ্রামের রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে আরও অস্থিতিশীলতার দিকে ঠেলে দেবে বলে জনসংহতি সমিতি মনে করে।

গণমাধ্যমে পাঠানো এই বিবৃতিতে আরো বলা হয়, পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি কোনভাবে উক্ত হামলা ও হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত নয়। জনসংহতি সমিতি উক্ত সহিংস ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রকৃত অপরাধীদের যথাযথ বিচারের দাবি জানায়। জনসংহতি সমিতি উক্ত ঘটনায় নিহত ও আহত ব্যক্তিদের শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করছে এবং আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছে। একই সাথে এধরনের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে তৎউদ্দেশ্যে এবং পার্বত্য সমস্যার স্থায়ী সমাধান ও এই অঞ্চলে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি যথাযথ ও পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের জন্য সরকারের নিকট জোর দাবি জানাচ্ছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *