আঞ্চলিক সংবাদ

রুমার ঘটনায় জেএসএস এর সম্পৃক্ততা ভিত্তিহীনঃ বিবৃতিতে দাবী করছে সংগঠনটি

আইপিনিউজ ডেক্স(ঢাকা): বান্দরবানের রুমার বথি ত্রিপুরা পাড়ায় আইনরক্ষাকারী বাহিনী ও কথিত সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের মধ্যে গত ২ ফেব্রুয়ারী সংঘটিত বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় জনসংহতি সমিতি’র কেউই জড়িত নয় বলে জানিয়েছে সংগঠনটি। গতকাল বৃহষ্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারী) সংগঠনটির সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সজীব চাকমা স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে সংগঠনটি।

বিবৃতিতে সংগঠনটি জানায় যে, উক্ত ঘটনার সাথে জনসংহতি সমিতি বা সমিতির কোন সদস্য জড়িত নয়। জনসংহতি সমিতির কোন ধরনের সশস্ত্র গ্রুপ থাকার প্রশ্নই উঠে না। জনসংহতি সমিতির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য-প্রণোদিত বলেও দাবী করছে সংগঠনটি।

বিজ্ঞাপণ

উক্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটি আরো জানায় যে, জনসংহতি সমিতির নেতৃত্বে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নের আন্দোলনকে নস্যাৎ করা এবং জনসংহতি সমিতির উপর দমন-পীড়নের হীনলক্ষ্যে উদ্দেশ্য-প্রণোদিতভাবে উক্ত ঘটনার সাথে জনসংহতি সমিতিকে জড়িত করা হয়েছে বলে জনসংহতি সমিতি মনে করে।
এছাড়া আইনরক্ষাকারী বাহিনী ও কথিত সশস্ত্র গ্রুপের মধ্যে সংঘটিত বন্দুকযুদ্ধের সাথে জনসংহতি সমিতিকে উদ্দেশ্য-প্রণোদিতভাবে জড়িত করায় সংগঠনটি তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদও জানিয়েছে।

উল্লেখ্য যে, আইনরক্ষাকারী বাহিনীর গণমাধ্যম শাখা আইএসপিআর এক প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায় যে, আইনরক্ষাকারী বাহিনীর সাথে সংঘটিত বন্দুকযুদ্ধ “সন্তু লারমা সমর্থিত জেএসএস মূল দলের সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের” সাথে সংঘটিত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। যে অভিযোগকে “সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য-প্রণোদিত” বলে দাবী করছে জনসংহতি সমিতি।

বিজ্ঞাপণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable Your Ad Blocker.