অন্যান্য

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার এক আদিবাসী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার গোগ্রাম ইউনিয়নের সোনাডাইং গ্রামের এক আদিবাসীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ধর্ষিতার মা বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন।
মামলায় বলা হয়েছে, এক বছর আগে বেড়াতে গেলে ধর্ষক শ্রী ইসহাক সরেন এর সাথে আদিবাসী মেয়ের পরিচয় হয়। বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষক গত বছরের ২৭এপ্রিল ৫ টার সময় বিড়ইল গ্রামে তাকে উঠিয়ে নিয়ে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে ওই আদিবাসী নারীকে ধর্ষণ করে। প্রায় কয়েক মাস যাবত অনেক বার ধর্ষণ করে। এর ওই নারীকে খুজে পাওয়া না গেলে ১৫ দিন ধর্ষকের বাড়ি থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়। পরে আদিবাসী সাওতাল ধর্মের প্রথা অনুযায়ী আগামী ১ সপ্তাহের মধ্যে বিবাহ সম্পূর্ণ করবে বলে ইসহাক সরেনের পিতা জার্মন সরেন ও মাতা মারিয়া টুডু প্রতিশ্রুতি দেন। কিছুদিন পর ইসহাক সরেন কাজের নাম করে ঢাকা চলে যায়। ৬ মাসেও সে বিয়ে না করায় আদিবাসী সাওতাল পরগোনা পরিষদের সভাপতি শ্রী যোকেশ হেমরম এর কাছে নালিশ করা হয়। পরে পরগোনার নালিশ করতে ব্যর্থ হলে ধর্ষিতার পরিবার মামলা করেন।
এব্যাপারে গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিপজুর আলম মুন্সি মামলার বিষয়টি স্বীকার করে জানান তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞাপণ

Back to top button