আঞ্চলিক সংবাদ

দলিত কিশোরীর ধর্ষণকারীর গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চায় বিডিইআরএম

আইপিনিউজ ডেক্স(ঢাকা): গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী দলিত (রবিদাস জনগোষ্ঠী) কিশোরীর ধর্ষণকারীকে অনতিবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ দলিত ও বঞ্চিত জনগোষ্ঠী অধিকার আন্দোলন (বিডিইআরএম)। আজ  শনিবার (১৫ অক্টোবর ) সকাল ১১টায় গাইবান্ধার ডিবি রোডস্থ গানাসাস মার্কেটের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মামলার বাদী নিরব রবিদাস। এসময় বক্তব্য রাখেন পরিবেশ আন্দোলন-গাইবান্ধার আহবায়ক ওয়াজির রহমান রাফেল, নাগরিক মঞ্চের আহবায়ক ও জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু, সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক জাহাঙ্গীর কবির তনু, জনউদ্যোগ এর সদস্য-সচিব প্রবীর চক্রবর্তী, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট লীগের নেতা মৃণাল কান্তি বর্মণ, মানবাধিকার কর্মী অঞ্জলী রানী দেবী, বাংলাদেশ দলিত ও বঞ্চিত জনগোষ্ঠী অধিকার আন্দোলন (বিডিইআরএম)-কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক শিপন রবিদাস প্রাণকৃষ্ণ, ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক শাওন ভুইমালী, জাতীয় যুব জোট-গাইবান্ধা জেলা শাখার সভাপতি সুজন প্রসাদ, বিডিইআরএম-গাইবান্ধা জেলা শাখার সাবেক সভাপতি সন্তোষ বাঁশফোড়, সাবেক সভাপতি দিলীপ বাঁশফোড়, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাজেশ বাঁশফোড়, বাংলাদেশ রবিদাস ফোরাম (বিআরএফ)-গাইবান্ধা শাখার সভাপতি রতন রবিদাস, সাবেক সভাপতি সুনীল রবিদাস, সাধারণ সম্পাদক খিলন রবিদাস, বাংলাদেশ রবিদাস উন্নয়ন পরিষদ (বিআরডিসি)-গাইবান্ধা জেলা শাখার সভাপতি দধিয়া রবিদাস, গাইবান্ধা জেলা রবিদাস পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রবিদাস জাম্বু, জেলা বিডিইআরএম নেতা দিপু বাঁশফোর, কৃষ্ণ রবিদাস, বিআরএফ-ফুলছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি সুবল রবিদাস, রবিদাস নেতা মাখন রবিদাস, বাংলাদেশ রবিদাস ছাত্র ফোরাম (বিআরএসএফ)-গাইবান্ধা জেলা শাখার সভাপতি সুজন রবিদাস, নারী নেত্রী সেফালী দেবনাথ প্রমুখ।
বক্তাগণ বলেন, গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি উপজেলায় উদাখালী ইউনিয়নের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী দলিত কিশোরীকে অত্র ইউনিয়নের জনৈক ময়নাল দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবন্ধিতা ও দারিদ্রতার সুযোগে ধর্ষণ করে আসছিল। সেই মেয়ে এক পর্যায়ে গর্ভবর্তী হলে আসামী ময়নাল তার শ্বশুরবাড়ী নিয়ে গিয়ে গর্ভপাত করায়। গর্ভপাতকালে ভিকটিম অসুস্থ হয়ে গেলে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে এলাকার লোক বিষয়টি জানতে পারে। ভিকটিমের মামা নিরব রবিদাস বাদী হয়ে ফুলছড়ি থানায় এজাহার দায়ের করে। ফুলছড়ি থানার মামলা নং ০২।
বক্তরা আরো বলেন, দলিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর নারীরা সবচেয়ে বেশি ধর্ষণ ও যৌন হয়রানীর শিকার হচ্ছে। দলিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ওপর নিপীড়ন, ধর্ষণের কোনো বিচার হয় না। ধর্ষককে গ্রেফতার করা হলেও দুদিন পর ছাড়া পেয়ে যায়। এই যে দেশের বিচারহীনতার সংস্কৃতি, খামখেয়ালীপনা আচরণ এবং এক ধরনের এড়িয়ে যাওয়ার মানসিকতার কারণে আজ তাদের প্রতি নিপীড়ন, অত্যাচার, ধর্ষন এবং উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র চলছে। বিচারের দীর্ঘসূত্রিতার কারণে ভুক্তভোগী নির্যাতিত নারী বিচার পাচ্ছে না। এজন্য নারী ধর্ষণ ও যৌন হয়রানীর তদন্ত ও বিচার দ্রুত করা উচিত।
সমাবেশে বিডিইআরএম নেতৃবৃন্দ আগামী ৩ দিনের আল্টিমেটাম বেঁধে দিয়ে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে অনতিবিলম্বে আসামি ময়নাল হক ও তার স্ত্রী সাবিনাকে গ্রেপ্তারের জোর দাবি জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable Your Ad Blocker.