জাতীয়

অনশন ভাঙলেন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

১৬৩ ঘন্টা পর অনশন ভাঙলেন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা। আজ বুধবার সকাল ১০টা ২৩ মিনিটে তারা পানি পান করে অনশন ভাঙেন।

শাবিপ্রবির সাবেক অধ্যাপক ও প্রথিতযশা লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হকের অনুরোধে শিক্ষার্থীরা অনশন ভেঙেছেন।

বিজ্ঞাপণ

শাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে গত ১৯ জানুয়ারি দুপুর ২টা ৫০ মিনিট থেকে শুরু হয় শিক্ষার্থীদের অনশন।

অনশনরত ২৪ শিক্ষার্থীর মধ্যে একজনের বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি বাড়ি চলে যান এবং পরবর্তীতে গত রোববার ও সোমবারে আরও ৫ শিক্ষার্থী অনশনে বসেন।

এ দিকে, আজ ভোররাত ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক। অনশনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে তারা দেখা করেন। তাদের কাছ থেকে পুরো ঘটনা শুনেন।

বিজ্ঞাপণ

সেসময় অনশনরত শিক্ষার্থীদের তিনি বলেন, ‘জীবন অনেক মূল্যবান, তুচ্ছ কারণে জীবন অপচয় করো না। (গতকাল) আমার বাসায় উচ্চ পর্যায়ের এক প্রতিনিধিদলের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে তোমাদের দাবি পূরণ হবে। তাই দেরি না করে আমরা চলে এসেছি। তোমাদের অনশন না ভাঙিয়ে যাব না।’

তিনি আরও বলেন, ‘তোমাদের দাবি পূরণ হবে। তোমাদের উসিলায় বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ঠিক হবে।’

এরপর অনশনকারী শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল রাফি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে যাদের অবস্থা সংকটাপন্ন, তাদের কথা বিবেচনায় অনশন ভাঙতে স্যার (ড. জাফর ইকবাল) অনুরোধ করেছেন। পরবর্তীতে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে স্যারের ওপর বিশ্বাস রেখে আমরা অনশন ভেঙে ফেলবো।’

পরে অনশনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাসপাতালে থাকা ২০ শিক্ষার্থী উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আসেন। পরে ২৮ শিক্ষার্থী এক সঙ্গে অনশন ভাঙেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable Your Ad Blocker.